একনেকে ১৬ প্রকল্পের চূড়ান্ত অনুমোদন

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভ্যাট নয় : প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশ : ১১ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে কিছুতেই ভ্যাট নেওয়া যাবে না। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সবকিছু ভ্যাটের আওতামুক্ত থাকবে। গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক) সভায় এক অনির্ধারিত আলোচনায় তিনি এ কথা বলেন। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনা। এ সময় তিনি ১৫ হাজার ৬৮৩ কোটি টাকা ব্যয়ে ১৬টি প্রকল্পের চূড়ান্ত অনুমোদন দেন।

গত সোমবার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের সম্পাদকদের সঙ্গে প্রাক-বাজেট আলোচনা শেষে অর্থমন্ত্রী

সাংবাদিকদের বলেন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের টিউশনি ফির ওপর কর আরোপ হবেই। ছাত্রদের কাছ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মালিকরা কিভাবে তা আদায় করবে সেটা তাদের বিষয়। আমরা এ ব্যাপারে কোনো ছাড় দেব না। এরই পরিপ্রেক্ষিতে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সব বিষয় ভ্যাটের আওতামুক্ত থাকবে বলে জানালেন প্রধানমন্ত্রী।

উল্লেখ্য, গত অর্থবছর বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে প্রথমবারের মতো ভ্যাট আরোপ করেছিল সরকার। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের আন্দোলনের মুখে পরে তা প্রত্যাহার করতে হয়েছে।

সভাশেষে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল সাংবাদিকদের বলেন, অর্থমন্ত্রী একটি অনুষ্ঠানে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভ্যাট নিয়ে কী বলেছেন সেটা তার ব্যক্তিগত বক্তব্য। একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রী পরিষ্কারভাবে জানিয়ে দিয়েছেন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কোনো কিছুতেই ভ্যাট নেওয়া হবে না। এমনকি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ভবনের সবকিছুই থাকবে ভ্যাটমুক্ত।

সভায় ১৬টি প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে বলে জানান পরিকল্পনামন্ত্রী। তিনি জানান, মোট ব্যয়ের মধ্যে প্রকল্প সাহায্য ৮ হাজার ৭৪০ কোটি টাকা। বাকি ব্যয় সরকারি খাত থেকে মেটানো হবে। বিভিন্ন দফায় সমন্বয় করে বাস্তবায়িত হচ্ছে দেশের প্রথম রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র। এছাড়া পাবনার ঈশ্বরদীতে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ কাজের ভারী মালামাল নিরাপদে ও দ্রুত প্রকল্প এলাকায় পৌঁছাতে নতুন রেলপথ নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণকে কেন্দ্র করে নেওয়া এই দুটি প্রকল্প বাস্তবায়নে ১১ হাজার ৩১৭ কোটি টাকা ব্যয় করবে সরকার। রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের উৎপাদিত বিদ্যুৎ ইভাকুয়েশনের জন্য সঞ্চালন অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পে ১০ হাজার ৯৮১ কোটি টাকা ব্যয় করা হবে। অন্যদিকে ৩৩৬ কোটি টাকা ব্যয় করা হবে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য সিগন্যালিংসহ রেললাইন নির্মাণ ও সংস্কার প্রকল্পে। প্রকল্প দুটি একনেক সভায় অনুমোদন দেওয়া হয়।

"