দুর্ঘটনার তদন্ত শুরু

সরিয়ে দেওয়া হলো ত্রিভুবন বিমানবন্দরের ৬ কর্মকর্তাকে

প্রকাশ : ১৪ মার্চ ২০১৮, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের বিমান দুর্ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ছয় কর্মকর্তাকে নেপালের ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল টাওয়ারের (এটিসি) কার্যালয় থেকে বদলি করা হয়েছে। দুর্ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী এ ছয় কর্মকর্তার মানসিক আঘাত প্রশমনে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দেশটির ইংরেজি দৈনিক মাই রিপাবলিকার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে আসে। এদিকে বিধ্বস্ত বিমানের সংগৃহীত ডাটা রেকর্ডার নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে নেপালের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। নেপালের ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের মহাব্যবস্থাপক রাজকুমার ছেত্রির বরাত দিয়ে এ তথ্য জানায় একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম।

ওই খবরে জানানো হয়, বিধ্বস্ত বিমানের নির্মাতা প্রতিষ্ঠান কানাডার বোমবারডিয়ার বলেছে, তারা তদন্তের কাজে নেপালে একটি দল পাঠাবে। ধ্বংসাবশেষ থেকে ডাটা রেকর্ডার উদ্ধার করা হয়েছে। সেটি নিরাপদে রাখা হয়েছে। ডাটা রেকর্ডার নিয়ে তদন্তের পর এ নিয়ে পরিষ্কার তথ্য পাওয়া যাবে। এদিকে ইউএস-বাংলার এই বিমান ছিল বোমবারডিয়ার কিউ ৪০০ সিরিজের।

নেপালের বেসামরিক বিমান কর্তৃপক্ষের উপমহাপরিচালক রাজন পোখারেল বলেছেন, ‘নির্মম ঘটনার পর মানসিক চাপ কমিয়ে আনতে এটাই মানসম্মত পদ্ধতি। তারা বিশাল একটি দুর্যোগের সাক্ষী এবং বিস্মিত। এমন অবস্থায় দুর্ঘটনাপরবর্তী মানসিক চাপ কমাতে আমরা তাদের অন্য বিভাগে বদলি করেছি। তবে বিধ্বস্ত বিমানের পাইলট ও এটিসি টাওয়ারের কর্মকর্তাদের সর্বশেষ কথোপকথনের অডিও রেকর্ড ফাঁসের সঙ্গে তাদের বদলির সম্পর্ক নেই বলে পরিষ্কার করেছেন তিনি।

 

"