জামালপুরে সালিশে মাতব্বরকে পিটিয়ে হত্যা

প্রকাশ : ১৩ মার্চ ২০১৮, ০০:০০

জামালপুর প্রতিনিধি

জামালপুর সদর উপজেলার একটি সালিশে মাতব্বরকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় পুলিশ দুজনকে গ্রেফতার করেছে। গতকাল সোমবার সকাল ১০টার দিকে জামালপুর সদর উপজেলার দিগপাইত ইউনিয়নের পূর্বপাড় দিঘুলী গ্রামের শাহপাড়া এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। নিহত ব্যক্তি পূর্বপাড় দিঘুলী গ্রামের আজাফর আলীর ছেলে মো. বাবর আলী (৪০)। তিনি ওই গ্রামের মাতব্বর হিসেবে পরিচিত ছিলেন। তিনি দিগপাইত ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। পুলিশ এ ঘটনায় একই গ্রামের কাজেম উদ্দিন (৫০) ও তার ছেলে জয়নাল আবেদীন জুরমতকে (৩৫) গ্রেফতার করেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন ধরে মফিজ উদ্দিন হাজী ও কাজেম উদ্দিনের মধ্যে একটি চলাচলের রাস্তা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। ওই বিরোধ সমাধানের জন্য কাজেম উদ্দিনের বাড়িতে গতকাল সকাল ১০টার দিকে একটি সালিশ বৈঠক বসে। সালিশ বৈঠকে উভয়পক্ষের মধ্যে বাকবিতন্ডার একপর্যায়ে মারপিট শুরু হয়। এ সময় কাজেম উদ্দিনের ছেলে নজরুল ইসলাম (৩০) সালিশে আসা মাতব্বর মো. বাবর আলীকে কাঠের লাঠি দিয়ে মাথায় আঘাত করে। এ সময় স্থানীয় লোকজন গুরুতর অবস্থায় তাকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। পুলিশ অভিযান চালিয়ে জামালপুর জেনারেল হাসপাতাল এলাকা থেকে কাজেম উদ্দিন (৫০) ও তার ছেলে জয়নাল আবেদীন জুরমতকে (৩৫) গ্রেফতার করে।

জামালপুর সদর উপজেলার নারায়ণপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের উপপরিদর্শক (এস আই) মো. জয়নাল আবেদীন বলেন, বাড়ির চলাচলের রাস্তা নিয়ে সালিশের মধ্যে একপক্ষের লোকজনের মারপিটে ওই মাতব্বরের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় দুজনকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। নিহতের স্ত্রী সামেনা বেগম বাদী হয়ে জামালপুর সদর থানায় একটি মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

"