শোবিজে কাদা ছোড়াছুড়ি বন্ধ হবে কি?

প্রকাশ : ১৫ জুলাই ২০১৭, ০০:০০

হাসান সাইদুল

বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে আগের সুবাতাস বইছে না যেন। দিন দিন আরো সংকুচিত হচ্ছে আমাদের এই সোনালি জগৎ। সম্প্রতি কয়েকটি ঘটনায় তা অনুমান করা যায়। চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি নির্বাচনের পর চলচ্চিত্র শিল্পী কলাকুশলীদের মাঝে কয়েকটি ভাগ লক্ষ করা যায়। যৌথ প্রযোজনা নিয়ে চলচ্চিত্র জগতে যে অস্থিরতা দেখা দিয়েছে, তাতে ঢাকাই চলচ্চিত্রের আয়তন যেন আরো সংকুচিত হচ্ছে। ব্যক্তিস্বার্থের জন্য কথিত তারকারা একে অপরের দিকে কাদা ছুড়ছেন। অনেকেই নিজকে তারকা বলে দাবি করছেন। কেউ কেউ বলছেন, আমি একসময় প্রথম শ্রেণির তারকা ছিলাম। কেউ আবার নিজের যোগ্যতার কথা ভুলে অন্যদের যোগ্যতা নিয়ে কথা বলছেন।

সানী-মিশা-শাকিব, তারকা প্রসঙ্গ সম্প্রতি শাকিব-অপুর বিয়ে প্রসঙ্গে শাকিব খান নিজেকে অসংখ্যবার ‘সুপারস্টার’ বলে দাবি করেন। এই নিয়েও চলচ্চিত্রাঙ্গনসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শব্দটি নিয়ে বেশ আলোচনা চলছে।

২৫ এপ্রিল ‘বাহাদুরী’ সিনেমার মহরতে এ বিষয়ে মুখ খুলেছেন চিত্রনায়ক ওমর সানী ও অভিনেতা মিশা সওদাগর। মিশা সওদাগর বলেন, ‘এখন সেটে গেলে শুনতে পাই অমুক খান এসেছে। কিন্তু কেন সেটা শুনব? শুনতে চাই, সেটে পরিচালক এসেছেন।’ ‘একসময় পরিচালক এসেছে শুনলে সবাই দাঁড়িয়ে যেতাম। এরপর এসেছে ‘ভাই’ সংস্কৃতি। ভাই তো আমাদের যা ইচ্ছে তাই করে দিল। তাও ভাইয়ের নাম বলি না। কখন বলব? ৫১ বছর বয়স, মরতে বসেছি। আরেকজন বলে নায়িকা এসেছে, নায়িকা। আরে সুপারস্টার! একজন পরিচালক হচ্ছেন বড় সুপারস্টার। তিনি বলেন, ‘আমি শুনতে চাই, ইবনে মিজানের সিনেমা এসেছে, কিংবদন্তি পরিচালক আজিজুর রহমানের সিনেমা আসছে।’ ওমর সানি বলেন, ‘এখন দুয়েকটা সিনেমায় কাজ করলেই সাংবাদিকরা তারকা লিখে দিচ্ছেন। এখন যারা কাজ করছেন তাদের কয়টা সিনেমা হিট হয়েছে। তাদেরকে আমরা কথায় কথায় সুপারস্টার বলে দিই। মিশা সওদাগরের ক্যারিয়ারে হিট সিনেমা রয়েছে। আমার ক্যারিয়ারে হিট সিনেমা রয়েছে। এ রকম যদি বলি মান্না, মৌসুমী, শাবনূরদের ক্যারিয়ারে হিট সিনেমা রয়েছে। এখন সবাইকে কথায় কথায় স্টার, সুপারস্টার বলে দিই। এটা ঠিক নয়। এটা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে।’ তিনি আরো বলেন, ‘আমরাও একসময় নতুন ছিলাম। নতুনদের আমরা সহযোগিতা করব। তারাও একদিন স্টার, সুপারস্টার হবে। চলচ্চিত্রে পা রাখা মাত্রই যদি স্টার বলে ফেলি তা হলে তাদের ভবিষ্যৎ ভালো হওয়ার সম্ভাবনা থাকে না।’

"