ঈদে প্রচারিত ১৬ নাটকে প্রশংসিত ফারিণ

প্রকাশ : ০৪ জুন ২০২০, ০০:০০

বিনোদন প্রতিবেদক

তাসনিয়া ফারিণ, এই প্রজন্মের আলোচিত তরুণ অভিনেত্রী। খুব অল্প সময়েই নিজের অভিনয়গুণে দর্শকের কাছে প্রশংসিত হচ্ছেন। সময়ের পালাবদলে ভালো ভালো গল্পে এবং ভিন্নধর্মী চরিত্রে ফারিণের প্রতি নির্মাতাদের আগ্রহ এবং ভরসাও বাড়ছে। ফারিণ ভক্ত, দর্শক থেকে শুরু করে নির্মাতাদের ফারিণ প্রসঙ্গে একটি কথা যেন প্রচলিত হয়ে গেছে আর তা হলো, ফারিণ ন্যাচারাল অ্যাক্টিং করেন। যে কারণে ফারিণ যে চরিত্রে অভিনয় করেন, তা হয়ে উঠে প্রাণবন্ত। দর্শকও ফারিণের চরিত্রের গভীরে তার অভিনয়ের কারণেই মিশে যেতে পারেন। গেল রোজার ঈদে বিভিন্ন চ্যানেলে এবং ইউটিউব ফারিণ অভিনীত ১৬টি নাটক প্রচার হয়েছে।

নাটকগুলো হচ্ছেÑ ‘মন ছুটে যায়’, ‘দেবদাস জুলিয়েট’, ‘লুকিয়ে বাঁচুক ভালোবাসা’, ‘আমি পাগল বলছি’, ‘কালাচাঁন ০০৭’, ‘রাজনীতি পার্ট ওয়ান’, ‘রাজনীতি পার্ট টু’, ‘ডেঞ্জার লাভ’, ‘পাশের বাসার মেয়ে’, ‘চলো পালাই’, ‘মনে মনে’, ‘আনলিমিটেড পেরা’, ‘ফেক আইডি’, ‘ডেটিং সেটিং’, ‘ফেক প্রেম’, ‘টয় বয়’। এই নাটকগুলোর শুটিং তিনি শেষ করেছিলেন লকডাউন শুরু হওয়ার আগেই অর্থাৎ গেল ১৮ মার্চ ফারিণ সর্বশেষ নাটকের শুটিংয়ে অংশ নিয়েছেন। ঈদ উপলক্ষে গেল ২৫ মে ‘ঈগল প্রিমিয়ার স্টেশন’ ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত হয় ফারিণ অভিনীত জাকারিয়া শৌখিন পরিচালিত ‘দেবদাস জুলিয়েট’ নাটকটি। এই নাটকটিই ফারিণ অভিনীত ঈদের নাটকের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ভিউয়ার্স উপভোগ করেছেন। গতকাল পর্যন্ত নাটকটি প্রায় ২৭ লাখ ভিউয়ার্স উপভোগ করেছেন।

পাশাপাশি ‘রাজনীতি পার্ট ওয়ান ও টু’ (পরিচালক মাইদুল রাকিব), ‘ডেঞ্জার লাভ (পরিচালক মোহন আহমেদ)’, ‘আনলিমিটেড প্যারা (পরিচালক মেহেদী হাসান হৃদয়)’ নাটকে অভিনয়ের জন্যও প্রশংসিত হচ্ছেন। অন্যান্য প্রচারিত নাটকগুলোর জন্যও ফারিণ প্রশংসিত হচ্ছেন। মূল কথা, এবারের ঈদ অভিনয়ের জন্য ফারিণ সবচেয়ে বেশি আলোচিত হচ্ছেন। তার পরিবারের সদস্যরা যদিও করোনা ক্রান্তিকালে সংবাদই বেশি দেখছেন। তার পরও পরিবারের সবাই ফারিণ অভিনীত ‘পালিয়ে বাঁচুক ভালোবাসা’ নাটকটি দেখে তার অভিনয়ে সবাই মুগ্ধ হয়েছেন।

ঈদের কাজগুলো প্রসঙ্গে ফারিণ বলেন, ‘সত্যি বলতে কী বলা যায় সবগুলো নাটকে অভিনয়ের জন্যই বেশ সাড়া পাচ্ছি। একেকজনের কাছে একেকটি নাটক আলাদাভাবে ভালো লাগার সৃষ্টি করছে। আমার নিজের বেশি ভালো লেগেছে পাশের বাসার মেয়ে (পরিচালক ইমরাউল রাফাত) এবং ডেঞ্জার লাভ। এবারের ঈদে এই দুটো নাটক আমার ভীষণ পছন্দের। তবে এটা সত্য দর্শকের কাছ থেকে বেশি সাড়া পাচ্ছি দেবদাস জুলিয়েট নাটকের জন্য। ডেঞ্জার লাভ নাটকে পুরান ঢাকার ভাষায় প্রথম কাজ করেছি। যদিও ভুলত্রুটি ছিল ভাষা বলাতে, কিন্তু তার পরও সবাই বেশ প্রশংসা করছেন।’ এদিকে ফারিণের সবচেয়ে প্রিয় অভিনয়শিল্পী সুবর্ণা মুস্তাফা ও তারিক আনাম খান। ফারিণের আগ্রহ আছে সিনেমায় কাজ করার। এই মুহূর্তে সিনেমায় কাজ করার কথা ভাবছেন না তিনি। কারণ করোনা পরিস্থিতিতে দেশের সার্বিক পরিস্থিতি ভালো নয়। উল্লেখ্য, ফারিণ অভিনীত নাটকগুলো টিভিতে প্রচারের পর কিছু নাটক এখনো ইউটিউবে প্রকাশ বাকি রয়েছে।

 

"