আজাদ রহমানকে উৎসর্গ করে অধরার ‘এইতো সেই পৃথিবী’

প্রকাশ : ২১ মে ২০২০, ০০:০০

বিনোদন প্রতিবেদক

গত ১৬ মে প্রয়াত হয়েছেন উপমহাদেশের প্রখ্যাত সংগীতশিল্পী, সংগীত পরিচালক, সংগীত বিশেষজ্ঞ, গবেষক আজাদ রহমান। এই প্রজন্মের গীতিকার অধরা জাহানকে তিনি বেশ ¯েœহ করতেন। যখনই তার সঙ্গে গান নিয়ে নানা আলোচনায় মেতে উঠতেন আজাদ রহমান। কিন্তু সেই প্রিয় মানুষটির হঠাৎ প্রয়াণে ভীষণ কষ্ট পেয়েছেন। তাই তার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা জানিয়ে তাকে উৎসর্গ করেই করোনার এই সময়ে সচেতনতামূলক একটি ভিডিও বার্তা ‘এই তো সেই পৃথিবী’ অধরা তার ফেসবুক ওয়ালে গেল ১৮ মে রাতে শেয়ার করেছেন। ভিডিও এই বার্তাটিতে কথা বলেছেন দেশের বিভিন্ন অঙ্গনের কিংবদন্তি ব্যক্তিত্বরা। অধরা কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন আ স ম আবদুর রব, গাজী মাজহারুল আনোয়ার, দিলারা জামান, আবুল হায়াত, রামেন্দু মজুমদার, শহীদুল্লাহ ফরায়েজী, শেখ সাদী খান, সেলিনা হোসাইন, কলকাতার রূপঙ্কর বাগচী, সোহিনী মুখোপাধ্যায়, শর্মিলী আহাম্মেদ, নাছিমা খান, রবি চৌধুরী, লায়লা হাসান, গোলাম মোর্শেদ, হারুনুর রশিদ, মামুনুর রশীদ, খোশনূর, ফরিদ আহমেদের প্রতি।

একটু ভিন্ন ধরনের সচেতনতামূলক এই ভিডিও বার্তায় সবার আন্তরিক অংশগ্রহণ এবং আবেগঘন কথায় মুগ্ধ হচ্ছেন সবাই। প্রংশসিত হচ্ছে অধরার উদ্যোগে নির্মিত এই ভিভিওবার্তাটি। অধরা বলেন, ‘পরম শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় স্মরণ করছি আজাদ রহমান স্যারকে। দোয়া করি আল্লাহ যেন তাকে বেহেস্ত নসিব করেন। আমি মুগ্ধ, আমি বিস্মিত, আমি সত্যিই অনেক সম্মানিত। এমন পরম শ্রদ্ধার ব্যক্তিত্বরা আমার মতো অতি সাধারণ একজন মানুষের আহ্বানে আমাকে এমনভাবে সারা দিয়েছেন, যে কাউকেই আমাকে দ্বিতীয়বারের মতো মনে করিয়ে দিতে হয়নি। ছোট্ট একটা জীবনে এটাইতো অনেক বড় প্রাপ্তি, অনেক বড় ভালোলাগা। পৃথিবীতে যে এখনো নিঃস্বার্থ ভালোবাসা আছে ‘এই তো সেই পৃথিবী’ দিয়ে আমি নিজে তা আবারো প্রমাণ পেলাম। সবার প্রতিই আমি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ। এই ভালোবাসার কোনো প্রতিদান হয় না, হয় না কোনো তুলনা। আমাকে বলতেই হয় তারাই আসলে প্রত্যেকেই এক একটি দেশ। এত গুণিজনরা এখানে অপরিপক্ক হাতের লেখাটাই পড়েছেন, আমি সত্যি আপ্লুত। ধন্যবাদ শ্রদ্ধেয় আঁখি আলমগীর আপু, উপল ভাইয়া। আপনাদের সহযোগিতার কথাও দীর্ঘদিন মনে থাকবে পরম মমতায়।

 

"