আমি মানুষকে খুব সহজেই বিশ্বাস করি : খুশি

প্রকাশ : ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০

তুহিন খান নিহাল

দেশের জনপ্রিয় টেলিভিশন অভিনেত্রী শাহনাজ খুশি। জীবন ঘনিষ্ঠ গল্পের নাটকে চ্যালেঞ্জিং চরিত্রে অভিনয় করে দর্শকের কাছে প্রিয় অভিনেত্রীতে পরিণত হয়েছেন তিনি। মঞ্চ নাটকের মধ্য দিয়ে অভিনয়চর্চা শুরু করলেও টেলিভিশন নাটকেই ব্যস্ততা তার। এক যুগেরও বেশি সময় ধরে অভিনয় করা খুশির জন্মদিন আজ। নিজের বর্তমান ও নানা বিষয় নিয়ে তার সঙ্গে কথা বলেছেন তুহিন খান নিহাল।

বর্তমান ব্যস্ততা।

কয়েকটি ধারাবাহিকে নিয়মিত কাজ করছি। নাটকগুলো হচ্ছে এজাজ মুন্নার ‘শহরালী’ যা এনটিভিতে প্রচার হচ্ছে, সাগর জাহানের ‘সোনার খাঁচা’, বিটিভিতে আকরাম খানের ‘কালের যাত্রা’ ও বাংলাভিশনে প্রচার চলতি সকাল আহমেদের ‘ভদ্রপাড়া’। এ ছাড়া আগামী মাসে বৃন্দাবন

দাসের রচনায় ও সাগর জাহানের একটি ও দীপু হাজরার একটি ধারাবাহিকের কাজ শুরুর কথা রয়েছে। পাশাপাশি নিয়মিত খন্ড নাটক তো করছিই।

আজ আপনার জন্মদিন! ছোট্ট করে যদি বলেন এদিনের পরিকল্পনা কী?

পরিকল্পনা তেমন একটা নেই জন্মদিনে। সকালে আরটিভির ‘তারকালাপ লাইভ শো’তে অংশ নেব। এ ছাড়া বাকিটা সময় বাসাতেই থাকব। পরিবারকে সময় দেব। সবাই মিলে ভালো একটা দিন কাটাব।

জন্মদিনে প্রত্যাশা?

প্রত্যাশা থাকবে আমার দেশটা সুস্থ সুন্দর থাক, প্রত্যেক বাবা-মায়ের সন্তান রাস্তায়-শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে-যানবাহনে যেন নির্ভার থাকে। এ দেশটা আমার, এ কথাটা অত্যন্ত দায়িত্বপূর্ণ, এটা যেন আমরা সবাই উপলব্ধি করি। সবার যেন মঙ্গল হয়। আর সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন।

আজকের দিনে আপনার পাঁচটি ভালো গুণের কথা শুনতে চাই।

প্রথমেই বলতে হবে আমি পরিবারকে ভীষণ ভালোবাসি। যার জন্য সব কষ্ট সহ্য করতে পারি। দ্বিতীয়ত. আমি মানুষকে খুব সহজেই বিশ্বাস করি। আর আঘাত পাওয়ার পর তাকে কিছু বলতে পারি না। সবচেয়ে বড় কথা হলো, আমি মানুষকে ভীষণ ভালোবাসি। সহজেই কারোর সঙ্গে বিবাদে জড়াই না। সর্বশেষ বলব নাটক এবং যেকোনো কাজের প্রতি প্রচন্ড রকম শ্রদ্ধাশীল আমি।

নাটকে লম্বা সময় ধরে অভিনয় করছেন! বড় পর্দায় আসার ইচ্ছা নেই?

একজন শিল্পী হিসেবে প্রত্যেক শিল্পীর মতোই আমারও স্বপ্ন বা আগ্রহ রয়েছে ভালো গল্পের, ভালো চরিত্রের সিনেমায় কাজ করার। সেক্ষেত্রে পারিশ্রমিকের চেয়ে চরিত্র ও গল্প আমার কাছে প্রধান। আশা করি শিগগিরই সিনেমাতে কাজ করা হবে।

অভিনয়ের বাইরে অবসর সময়টায় কী করা হয়?

অভিনয়ের বাইরের সময়টা আমি পরিবারের সঙ্গেই কাটাই। মোটকথা অবসর সময়ে আমার কাছে শুধু পরিবার এবং পরিবার।

পরিবার নিয়ে জানতে চাই।

বৃন্দাবন, দীব্য-সৌম্য আমরা চার বন্ধু। আমরা ভালো আছি।

"