ফোক ফেস্ট মাতাবেন যারা

প্রকাশ : ০৯ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০

তুহিন খান নিহাল

সুদীর্ঘকালের পথ-পদচারণে বাংলার মাটির রূপ, রস ও প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে অবিরাম ঢেউ খেলে যায় অনিন্দ্য সুন্দর লোকজ সুরের ধারা। যে সুরের মোহনায় খুঁজে পাই বাঙালির হাজার বছরের ঐতিহ্য ও বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক ইতিহাস। যে ইতিহাসের পরতে পরতে গেঁথে আছে বাংলা লোকগানের বৈচিত্র্যময় সুর ও সংগীত। লোকগানের সুর-সুধা বিশ্বদরবারে ছড়িয়ে দেওয়ার লক্ষ্যে সান ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ২০১৫ সাল থেকে প্রতি বছর আয়োজিত হয়ে আসছে এশিয়ার সবচেয়ে বড় লোকসংগীতের উৎসব ‘ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ফোক ফেস্ট। তারই ধারাবাহিকতায় এবারও বসছে দেশি-বিদেশি নানা শিল্পীর অংশগ্রহণে লোকশিল্পীদের এই মিলনমেলা। রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়ামে আগামী ১৪ নভেম্বর শুরু হচ্ছে আন্তর্জাতিক লোকসংগীত উৎসব ১৯-এর পঞ্চম আসর। তিন দিনব্যাপী এ আয়োজন চলবে ১৬ নভেম্বর পর্যন্ত। প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত দর্শক উপভোগ করতে পারবে লোকশিল্পীদের গাওয়া শেকড় সন্ধানী সেসব গান। ফোক ফেস্টের এবারের আসরে অংশগ্রহণ করা শিল্পীদের নিয়ে এই প্রতিবেদন। লিখেছেন তুহিন খান নিহাল

প্রথম দিন

প্রেমা ও ভাবনা নৃত্যদল

নাচের ভুবনে ২০০৭ সালে শুদ্ধ নৃত্যচর্চায় বিশ্বাসী ‘ভাবনা নৃত্যদলের’ আগমন। বাংলাদেশের জনপ্রিয় নৃত্যশিল্পী ও কোরিওগ্রাফার শামীমা হোসাইন প্রেমার হাত ধরে এই নৃত্যদলের যাত্রা। প্রথম থেকেই ভাবনা নৃত্যদল বিভিন্ন নৃত্য আঙ্গিকের মাধ্যমে নজরুল ও রবীন্দ্রনাথকে মঞ্চে নিয়ে আসতে চায়। ভাবনা নৃত্যদল বিশ্বাস করে এর মাধ্যমে আমাদের দেশের সংস্কৃতি এবং শেকড়ের সংরক্ষণ করা সুন্দর ভবিষ্যতের দিকে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব। এ ছাড়া ভাবনা নৃত্যদল বিভিন্ন ঐতিহ্যবাহী লোকনৃত্য, রায়বেশে এবং আধুনিক ধারার নাচ পরিবেশন করে থাকে। ইতোমধ্যে তারা ‘ভানুসিংহের পদাবলি’, ‘শকুন্তলা’, ‘পাপমোচন’ প্রভৃতি পরিবেশন করেছে।

"