দেশকে উপস্থাপন করাটা সৌভাগ্যের

-মোনালিসা

প্রকাশ : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০

বিনোদন প্রতিবেদক

বাংলাদেশের মডেলিং জগতের অন্যতম একজন মোনালিসা। শুধু বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে উপস্থিত হয়েই একসময় এ দেশের দর্শকের মন মাতিয়ে ছিলেন। পরবর্তী সময়ে অভিনয় করেও দর্শকের মন জয় করেছিলেন তিনি। সেই মোনালিসা বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করছেন। তবে দেশ, দেশের মাটি, দেশের মানুষকে প্রতি মুহূর্তে মিস করেন নন্দিত এই তারকা। সুদূর যুক্তরাষ্ট্রে থাকলেও মন পড়ে থাকে তার দেশে। তাই তার কর্মে তিনি সবসময়ই চেষ্টা করেন দেশকে কীভাবে বিদেশের মাটিতে উপস্থাপন করা যায়। সেই সুযোগ আবার এল তার কাছে। চলতি সপ্তাহে শুরু হওয়া যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক ফ্যাশন উইকের রানওয়েতে হেঁটেছেন মোনালিসা। শোতে বাঙালি নারী-পুরুষের পোশাক শাড়ি, সেলোয়ার কামিজ ও পাঞ্জাবিকে বিশে^র খ্যাতিমান ডিজাইনার, কোরিওগ্রাফার ও মডেলদের সামনে উপস্থাপন করা হয়। ফ্যাশন শোতে অংশ নিয়ে মোনালিসা বলেন, সবসময়ই আমার ভাবনায় থাকে বাংলাদেশের নিজস্বতাকে কীভাবে দেশের বাইরে তুলে ধরা যায়। আমার নিজের আচার আচরণে, কথাবার্তা এবং পোশাকে-আশাকে সবসময়ই বাঙালিয়ানা ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করি। আমি বাংলাদেশি, এটাই আমার অনেক গর্বের, অনেক সুখের বিষয়। তাই ফ্যাশন শোতে বাংলাদেশকে উপস্থাপন করতে পারাটা আমার কাছে অনেক সৌভাগ্যের বলেই মনে হয়েছে। আমার মায়ের ডিজাইন করা শাড়ি পড়ে আমি ফ্যাশন শোতে অংশ নিয়েছি। বাংলাদেশের সংস্কৃতি ও পোশাককে বিশে^র দরবারে তুলে ধরতে পারার মধ্যে নিজের ভেতর যে কতটা ভালোলাগা কাজ করে এটা আসলে ভাষায় প্রকাশের নয়। আমি ধন্যবাদ জানাতে চাই যারা আমাকে এই ফ্যাশন উইকে বাংলাদেশি ফ্যাশনকে তুলে ধরার সুযোগ করে দিয়েছেন।

এদিকে গেল মে মাসে মোনালিসা কানাডার টরেন্টোতে অনুষ্ঠিত দক্ষিণ এশিয়ার সর্ববৃহৎ চলচ্চিত্র উৎসব ‘ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফ্যাস্টিভাল অব সাউথ এশিয়াতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়েছিলেন। বাংলাদেশের একজন সংস্কৃতিকর্মী হিসেবেই তিনি সেখানে আমন্ত্রণ পেয়েছিলেন। মোনালিসা সর্বশেষ যখন গত বছর দেশে এসেছিলেন তখন তিনি রাজের ‘অনুভবে’, নিপুণের ‘হয়তো তোমার কাছেই যাব’ দুটি নাটকে অভিনয়ের জন্য বেশ সাড়া পেয়েছিলেন। যাওয়ার আগে তিনি সুমন আনোয়ারের ‘যখন সবকিছু থেমে যায়’, সঞ্জয়ের ‘এক যে ছিল মা’ এবং শরীফুলের ‘লুকিয়ে ভালোবাসবো তারে’ নাটকে অভিনয় করেন।

 

"