আলোচনায় সারিকা সাবাহ

প্রকাশ : ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০

বিনোদন প্রতিবেদক

এ প্রজন্মের উদীয়মান নাট্যাভিনেত্রী সারিকা সাবাহ। এনটিভিতে প্রচার চলতি ধারাবাহিক নাটক ‘ফ্যামিলি ক্রাইসিস’-এ ঝুমর চরিত্রে অভিনয় করে যিনি দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছেন এবং এসেছেন আলোচনায়ও। সুবর্ণা মুস্তাফা ও জয়া আহসান যার অভিনয়ের অনুপ্ররেণা সারিকা সাবাহর নিজেকে একজন পেশাদার অভিনেত্রী হিসেবেই প্রতিষ্ঠিত করার স্বপ্ন। রংপুরের মেয়ে সারিকা সাবাহ্ ছোটবেলা থেকেই নাচ করতেন। টানা ছয় বছর নাচ শিখেছেন। ছোটবেলায় যখন বিভিন্ন বিজ্ঞাপন মন দিয়ে দেখতেন তিনি ভাবতেন সেসব বিজ্ঞাপনে নেই কেন তিনি। এমন ভাবনা থেকেই অনেকটা হঠাৎ করেই আদনান আল রাজীবের নির্দেশনায় হারপিকের ৪০ বছর সেলিব্রেশনের একটি বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করেন। এরপর তিনি রেদওয়ান রনি, আশফাক উজ্জামান বিপুল, মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করেন। ২০১৭ সালে তিনি মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজের নির্দেশনায় প্রথম নাটকে অভিনয় করেন। নাটকের নাম ‘ফ্রেন্ডস’। এরপর পড়াশোনা নিয়ে ব্যস্ত থাকার কারণে এক বছর অভিনয়ে বিরতির পর আবারও ব্যস্ত হয়ে উঠেন তিনি। ফিরে এসেই কাজল আরেফিন অমির ‘মেয়ে’ নাটকে অভিনয় করে আলোচনায় আসেন তিনি। এরপর তিনি একই পরিচালকের ‘জাস্ট চিল’সহ অন্যান্য পরিচালকের ‘বিউটিফুল’, ‘মুঠোফোন’, ‘লাভলি ওয়াইফ’, ‘অন্য প্রেমের গল্প’সহ আরো বেশকিছু নাটকে অভিনয় করে প্রশংসিত হন এবং নির্মাতাদের দৃষ্টিতে আসেন তিনি। এরই মধ্যে নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি থেকে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং-এ গ্র্যাজুয়েশন করেছেন সারিকা সাবাহ্। প্রবল আগ্রহ আছে তার সিনেমায় কাজ করার। তবে আপাতত আর নতুন কোনো ধারাবাহিকে কাজ করার আগ্রহ নেই তার। কারণ এনটিভিতে প্রচার চলতি ধারাবাহিক ‘ফ্যামিলি ক্রাইসিস’ নাটকে ঝুমুর চরিত্রে অভিনয় করেই তৃপ্ত তিনি। কারণ ঝুমুর চরিত্রে অভিনয় করেই তিনি দারুণ সাড়া পাচ্ছেন। সারিকা সাবাহ্ বলেন, ‘শুরুতে আমার পরিবার অভিনয়ে বাধা দিতেন। কিন্তু এখন পরীক্ষায় ভালো ফলাফল করায় এবং অভিনয়েও বেশ সাড়া পাওয়ায় পরিবারের সবাই খুব খুশি এবং তারা আমাকে নিয়ে গর্বিত। ইচ্ছা আছে নিজেকে একজন ভালো অভিনেত্রী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার। যারা আমার এই পথচলায় পাশে থেকেছেন, সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন, তাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।’

সারিকা সাবাহর ইচ্ছা আছে ভালো গল্পের চলচ্চিত্রে অভিনয় করার।

 

"