জয়ার সিনেমা পেল ভারতের চলচ্চিত্র পুরস্কার

প্রকাশ : ১১ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০

বিনোদন ডেস্ক

দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান। তার অভিনীত ‘এক যে ছিল রাজা’ সিনেমা পেয়েছে ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। এর আগে ২০১৭ সালে সেরা আঞ্চলিক ভাষার সিনেমা হিসেবে ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করে জয়া অভিনীত কৌশিক গাঙ্গুলির আলোচিত ছবি ‘বিসর্জন’। এবার পেল সৃজিত মুখার্জী পরিচালিত ‘এক যে ছিল রাজা’। গত শুক্রবার প্রকাশ হয়েছে ভারতের ৬৬তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের পূর্ণাঙ্গ তালিকা। এতে ভারতের সেরা ছবি হিসেবে পুরস্কার অর্জন করেছে বহুল আলোচিত ছবি ‘আন্ধাধুন’। আর সেরা আঞ্চলিক ছবি হিসেবে নাম ঘোষণা করা হয়েছে জয়া আহসান অভিনীত ব্যাপক প্রশংসিত সিনেমা ‘এক যে ছিল রাজা’। এ ঘোষণায় উচ্ছ্বসিত জয়া আহসান সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ‘এক যে ছিল রাজা’র কয়েকটি ছবি পোস্ট করে সেখানে লেখেন, দুটি কারণে এটি আমার কাছে এক বিরাট আনন্দের খবর হয়ে এসেছে। ২০১৭ সালে এ পুরস্কার পেয়েছিল ‘বিসর্জন’। আমি সে সিনেমার অন্যতম মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছিলাম। এ বছরের পুরস্কৃত সিনেমা ‘এক যে ছিল রাজা’তেও আমি অভিনয় করেছি। দ্বিতীয় আনন্দের বিষয় হলো, এ সিনেমার প্রেক্ষাপট বাংলাদেশের ভাওয়াল অঞ্চল। গবেষক দলের অংশ হিসেবে সিনেমাটিতে ভাওয়ালের স্থানীয় বাংলা উচ্চারণের ভঙ্গিমা নিয়ে আসার কাজটিতে আমি যুক্ত ছিলাম। কাকতালীয়ভাবে দুটি চলচ্চিত্রের প্রেক্ষাপটই বাংলাদেশ, এটি আমার আনন্দের মাত্রা পূর্ণতর করেছে। ‘এক যে ছিল রাজা’ সিনেমার প্রযোজনা সংস্থা এসভিএফ এবং পুরো টিমকে আন্তরিক অভিনন্দন।’

ঐতিহাসিক ভাওয়াল সন্ন্যাসী মামলা থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে ‘এক যে ছিল রাজা’ নির্মাণ করেছেন সৃজিত মুখার্জী। এই সিনেমার মূল চরিত্র রাজকুমার রমেন্দ্রনারায়ণ রায়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন যীশু সেনগুপ্ত। ভাওয়াল রাজার বোনের চরিত্রে আছেন জয়া আহসান। উল্লেখ্য, প্রত্যেক বছর এপ্রিলে ঘোষণা হয় ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার এবং ৩ মে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান। তবে লোকসভা নির্বাচনের জন্য পিছিয়ে দেওয়া হয়েছিল এবারের আসর।

 

"