‘রূপা ভাবী’তে তারিন-চঞ্চল

প্রকাশ | ১০ জুলাই ২০১৯, ০০:০০

বিনোদন প্রতিবেদক

‘দাঁত থাকলে বাঙালি দাঁতের মর্যাদা দেয় না। এই যে রূপা এত দিন সংসারের সব কিছুর দায়িত্ব নিয়ে সামলে গেছে আমরা কি কেউ তাকে প্রতিদান দিতে পেরেছি? আমাদের রূপারা প্রতিদান আশা করে না। কিন্তু তবু কি আমরা কোনো দিন বলেছি ধন্যবাদ রূপা, তুমি আসলে পরিবারের জন্য অনেক কিছুই করেছো। কিন্তু আমরা তাও বলি না, আমরা কত কৃপণ।’ অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী এমন একটি বিষয়কে উপজীব্য করে নির্মিত নাটক ‘রূপা ভাবী’র সম্পর্কে অল্প কথায় তুলে ধরার চেষ্টা করেন। মেজবাহ উদ্দিন সুমনের রচনায় ও আবু হায়াত মাহমুদের পরিচালনায় আগামী ঈদে আরটিভিতে প্রচারের জন্য নির্মিত হয়েছে নাটক ‘রূপা ভাবী’। নাটকটি প্রযোজনা করেছেন আলফা-আই প্রডাকশনের কর্ণধার শাহরিয়ার শাকিল। গত ৮ ও ৯ জুলাই রাজধানীর উত্তরার একটি শুটিং হাউসে নাটকটি নির্মাণের কাজ শেষ হয়েছে। নাটকটিতে আরো অভিনয় করেছেন ড. ইনামুল হক, শিরীন আলমসহ আরো অনেকে।

নাটকটি প্রসঙ্গে তারিন বলেন, ‘রূপা ভাবী নাটকটির গল্প প্রত্যেকটি মানুষের বিবাহিত জীবনের একটি অংশ। সবাই এ গল্পের সঙ্গে কোথাও না কোথাও নিজের জীবনের কিছুটা হলেও মিল খুঁজে পাবেন। লেখক খুব সুন্দরভাবে গল্পটা উপস্থাপন করার চেষ্টা করেছেন। সংসার সুখের হয় রমণীর গুণেÑ এ কথা কতটুকু সত্যি, তা এই গল্পে আছে। রূপা ভাবী নাটকে আমার স্বামীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন আমারই ভীষণ পছন্দের একজন কো-আর্টিস্ট, পছন্দের অভিনেতা চঞ্চল ভাই। তিনি এমনই একজন শিল্পী শুটিং-এ আসার আগে যার স্ক্রিপ্ট মুখস্থ থাকে, তিনি জানেন নাটকে তার চরিত্র কী। মূলকথা তার পূর্বপ্রস্তুতি থাকে বলেই তার সঙ্গে কাজটা ভীষণ উপভোগ করি আমি।’

চঞ্চল চৌধুরী বলেন, ‘একজন রূপা আমাদের বাঙালি নারীর চিরায়ত চরিত্র। তারা প্রতিদানের আশা নিয়ে সংসার আগলে রাখে না। কিন্তু তার পরও তারা দিনের পর দিন সংসারের জন্যই নিবেদিত হয়ে কাজ করেন। এই নাটকে রূপা চরিত্রে অভিনয় করেছেন তারিন। তারিন এককথায় অসম্ভব মেধাবাী একজন অভিনেত্রী। আমি যখন অভিনয় শুরু করি, তখন অনেক মেধাবী অভিনেত্রী ছিলেন। তারা অনেকেই এখন আর কাজ করছেন না। সাময়িক একটি সিস্টেমের ভেতরের মধ্যে পড়ে আমরা যা ইচ্ছা তাই করছি। মেধাবী শিল্পীদের মূল্যায়ন করছি না। তারিনের মতো মেধাবী শিল্পীদেরকে নিয়ে নিয়মিত নাটক নির্মাণ হওয়া উচিত। আর নির্মাতা হিসেবে আবু হায়াত মাহমুদ খুব ভালো। অনেক যতœ নিয়ে সে নাটক নির্মাণ করার চেষ্টা করেন।’

 

"