সাড়া পাচ্ছেন ঈশিতা...

প্রকাশ : ১৩ জুন ২০১৯, ০০:০০

বিনোদন প্রতিবেদক

ঈশিতার ‘আমার অভিমান’ গানে শ্রোতা-দর্শকরা শুনছিলেন তার আবেগজড়িত কণ্ঠে ‘কেড়ে নিও রাতের যত ঘুম, আরো নিও বিষাদগ্রস্ত বেলা, মেনে নিও একলা থাকা, দূরে রেখো তোমার অবহেলা, শুধু রেখে দিও রেখে দিও ভুল করে ভালোবাসা আমার অভিমান, আর রেখে দিও আমাকে নিয়ে তোমার ভুলে যাওয়া গান’। কাঁদো কাঁদো কণ্ঠে এই আবেগময় গানে নতুন করে শ্রোতা-ভক্তরা তাদের প্রিয় ঈশিতাকে একটু অন্যরকমভাবে পেয়েছেন বিধায় গানটি শুনছেন তারা।

সত্যিই নতুন গানে ঈশিতাকে যেন একটু নতুনভাবেই পাওয়া গেল। আর তাই ঈশিতার কণ্ঠে ‘আমার অভিমান’ গানটি এ সময়ে এসেছেন নতুন করে আলোচনায়। গেল ঈদে জি-সিরিজ থেকে প্রকাশিত অসংখ্য গানের মধ্যে এ গানটি রয়েছে আলোচনার শীর্ষে। গানটি লিখেছেন নন্দিত গীতিকার, সুরকার ও সংগীতশিল্পী লুৎফর হাসান এবং সংগীতায়োজন করেছেন মার্সেল। মিউজিক ভিডিও নির্মাণ করেছেন মন্জু আহমেদ। গেল ৩১ মে জি-সিরিজের ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত এ গান এরই মধ্যে ২ লাখ ৭০ হাজারেরও বেশি ভিউয়ার্স উপভোগ করেছেন। ঈদের সময়টাতে দেশে ছিলেন না ঈশিতা। দেশে ফিরেই গানটির জন্য যেন আরো বেশি সাড়া পাচ্ছেন তিনি। গেল ১০ জুন দেশে ফিরেছেন তিনি।

ঈশিতা বলেন, ‘আমার অভিমান গানটির জন্য বেশ ভালো সাড়া পাচ্ছি। এ ধরনের একটি গান যে শ্রোতা-দর্শকের মধ্যে ভালো সাড়া ফেলবে বুঝতে পারিনি। আমার অভিমানের জন্য শ্রোতা-দর্শকের কাছ থেকে সাড়াটা আমি একটু অন্যরকম আনন্দ উপভোগ করছি। আমি সবার প্রতি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ। সেই সঙ্গে যাদের কারণে এ গানটি হয়ে ওঠা, আমি তাদেরকে ধন্যবাদ দিতে চাই। ধন্যবাদ জি-সিরিজের সংশ্লিষ্ট সবাইকে।’

জি-সিরিজের ইউটিউব চ্যানেলে গানটির জন্য নানা ধরনের পজিটিভ মন্তব্য আসছে প্রতিনিয়ত। এদিকে গেল বছর ‘তোমার জানালায়’ শিরোনামে ঈশিতার একটি গান প্রকাশ পায় চ্যানেল আইতে। ২০০২ সালে আহমেদ রিজভীর কথায় এবং প্রণব ঘোষের সুর সংগীতে ঈশিতার ‘রাত নিঝুম’ অ্যালবামটি প্রকাশিত হয়েছিল। এরপর তাকে আর গানে পাওয়া যায়নি। ছোটবেলায় ঈশিতা আনিসুর রহমান তনুর কাছে গানে তালিম নিতেন। এরপর টানা ১৩ বছর ওস্তাদ ওমর ফারুকের কাছে এবং পরবর্তীতে আরো আট বছর সঞ্জীব দের কাছে গানে তালিম নেন। বর্তমানে তিনি নজরুল একাডেমির ইদ্রিস আলীর কাছে নিয়মিত তালিম নিচ্ছেন। সম্প্রতি ঈশিতা অভিনীত হামেদ হাসান নোমান পরিচালিত ‘আগুনের নোনাজল’ চ্যানেল আইতে প্রচার হয়। ঈশিতা অভিনীত একমাত্র সিনেমা প্রয়াত আব্দুল্লাহ আল মামুন পরিচালিত ‘বিহঙ্গ’। এরপর তাকে আর কোনো সিনেমায় দেখা যায়নি।

 

"