বিজয় দিবসের নাটকে অরুণা মেহজাবিন

প্রকাশ : ০৭ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০

বিনোদন প্রতিবেদক

দেশীয় চলচ্চিত্রের অনবদ্য অভিনেত্রী অরুণা বিশ্বাস। প্রয়াত নায়করাজ রাজ্জাকের হাত ধরেই এ দেশের চলচ্চিত্রে তার শুভ সূচনা হয়েছিল। ‘চাপা ডাঙ্গার বউ’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে অরুণা বিশ্বাস এ দেশের সিনেমাপ্রেমী দর্শককে মুগ্ধ করেছিলেন। তার সেই মুগ্ধ করার রেশ যেন এখনো বয়ে চলে সিনেমাপ্রেমী দর্শকের মাঝে। তবে চলচ্চিত্রে অভিনয়ের পাশাপাশি অরুণা এখন নিয়মিত টিভি নাটকে অভিনয় করেন। আবার মাঝে মাঝে নির্দেশনাতেও ব্যস্ত থাকেন। অন্যদিকে ছোট পর্দার এ সময়ের নন্দিত অভিনেত্রী মেহজাবিন চৌধুরী টিভি নাটকে নিয়মিত অভিনয় করছেন। তবে অভিনয় করার ক্ষেত্রে গল্প এবং চরিত্র তার মনের মতো হওয়া চাই। ঠিক তেমনি একটি গল্প আনিসুল হকের ‘বাবা আসবেন’। আগামী বিজয় দিবসে এনটিভিতে প্রচারের জন্য নির্মাতা হাবীব শাকিল নির্মাণ করেছেন বিজয় দিবসের বিশেষ নাটক ‘বাবা আসবেন’। নাটকটিতে দুটো গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন অরুণা বিশ্বাস এবং মেহজাবিন চৌধুরী। এরই মধ্যে রাজধানীর উত্তরায় একটি শুটিং হাউসে নাটকটির দৃশ্যধারণের কাজ শেষ হয়েছে।

নাটকটি নিয়ে অরুণা বিশ্বাস বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সময়ের অনেক গল্প আমাদের অজানা আছে। এখনো সেসব অজানা গল্প বা কাহিনি নিয়ে নাটক-সিনেমা নির্মিত হয়নি। ঠিক তেমনই একটি অজানা গল্পের নাটক বাবা আসবেন। আমি বিশ্বাস করি, নাট্যকালের গল্প বলার ধরনটা দর্শকের ভালো লাগবে। আমার সঙ্গে সহশিল্পী হিসেবে মেহজাবিন চৌধুরী অভিনয় করেছে। মেহজাবিন নিঃসন্দেহে এখন অনেক ভালো অভিনয় করছেন। সেটে একদম চুপচাপ থেকে কাজের প্রতি মনোযোগ থাকে তার। কোনো কিছু নিয়েই তার কোনো রকম বাড়তি চাহিদা নেই। তাকে আমার সত্যিই ভীষণ ভালোলাগে।

মেহজাবিন চৌধুরী বলেন, ‘বাবা আসবেন নাটকটির গল্প দর্শককে ফিরিয়ে নিয়ে যাবে মুক্তিযুদ্ধের সেই সময়ে। নাটকটিতে অভিনয় করে এতটুকু উপলদ্ধি হয়েছে আমার, আমাদের দেশের মেয়েরা নিজের পরিবার থেকেও কীভাবে কষ্ট পেয়েছে। ধন্যবাদ নির্মাতা হাবীব শাকিলকে যতœ নিয়ে এমন গল্পের নাটকটি নির্মাণ করার জন্য। ধন্যবাদ অরুণা দিদিকে, তিনি সব সময়ই আমাকে সহযোগিতা করেন।’

এদিকে অরুণা বিশ্বাস আগামী বিজয় দিবসে চ্যানেল আইতে প্রচারের জন্য নির্মাণ করেছেন মান্নানী হীরার রচনায় বিজয় দিবসের বিশেষ নাটক ‘জয়নব বিবি’। এতে তার সঙ্গে অভিনয় করেছেন জ্যোতিকা জ্যোতি। এফ জামান তাপসের নির্দেশনায় ফায়েদুজ্জামান তামিমের রচনায় ‘পূর্ণতা’ নাটকের কাজ শেষ করেছেন।

 

"