‘কৃষ্ণকলির আত্মকথা’য় সজল-অপর্ণা

প্রকাশ : ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

বিনোদন প্রতিবেদক

ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা আবদুন নূর সজল ও অভিনেত্রী অপর্ণা ঘোষ জুটিবদ্ধ হয়ে খুব বেশি কাজ করেননি। তবে তারা দুজন একসঙ্গে যে কাজগুলো করেছেন, প্রতিটিই দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছে। সজল ও অপর্ণাকে জুটি করে এবার তরুণ নাট্যনির্মাতা শ্রাবণ চক্রবর্তী দিপু নির্মাণ করেছেন নাটক ‘কৃষ্ণকলির আত্মকথা’। এটি রচনা করেছেন ইউসুফ বাশার এবং সংলাপ, চিত্রনাট্য করেছেন শ্রাবণ চক্রবর্তী দিপু। এরই মধ্যে মানিকগঞ্জের বেতিলা জমিদার বাড়িতে নাটকটির দৃশ্যধারণের কাজ শেষ হয়েছে। নাটকটিতে কৃষ্ণকলির ভূমিকায় অভিনয় করেছেন অপর্ণা এবং জমিদারের ছেলে প্রতুল জোয়াদ্দারের চরিত্রে অভিনয় করেছেন সজল।

নাটকটির গল্প প্রসঙ্গে শ্রাবণ চক্রবর্তী দিপু বলেন, জেলের মেয়ে কৃষ্ণকলির সঙ্গে প্রেম হয় জমিদারের ছেলে প্রতুল জোয়াদ্দারের। কিন্তু প্রতুলের বাবা-মায়ের চাপে একসময় নিজেকে সেই সম্পর্ক থেকে সরিয়ে নেয় কৃষ্ণকলি। কিন্তু কৃষ্ণকলির ইচ্ছেতে অন্য এক ছেলের সঙ্গে তার বিয়েতে দাওয়াত পেয়ে উপস্থিত হয় প্রতুল। শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার আগে কৃষ্ণকলি প্রতুলকে প্রণাম করে। কিন্তু এরপর আর খুঁজে পাওয়া যায়নি কৃষ্ণকলিকে। কারণ কৃষ্ণকলি নিজেকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়।’

নাটকটিতে অভিনয় প্রসঙ্গে সজল বলেন, দিপুর নির্দেশনায় এবারই প্রথম কাজ করেছি। নতুন হিসেবে বেশ গুছিয়ে কাজটি করেছেন দিপু। অপর্ণার সঙ্গে অনেক ভালো ভালো গল্পে আমি কাজ করেছি। আমি সব সময়ই বলি, সরাসরিই বলি আমার ভীষণ পছন্দের একজন শিল্পী অপর্ণা। তার সঙ্গে কাজের সময়টুকু আমি দারুণ উপভোগ করি। কৃষ্ণকলির আত্মকথা নাটকটি দর্শকের ভালো লাগবে আশা করছি।

অপর্ণা ঘোষ বলেন, ‘কৃষ্ণকলি বেশ চ্যালেঞ্জিং একটি চরিত্র। প্রচ- গরমের মধ্যে আমরা মানিকগঞ্জে কাজটি করেছি। বেশ ভালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে নির্মাতা দিপু কাজটি করেছেন। আমি খুবই আশাবাদী কাজটি নিয়ে। সজল ভাইয়ের সঙ্গে সব সময়ই কাজ করতে ভীষণ স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। তিনি এমনই একজন সহশিল্পী যার সঙ্গে অনায়াসে সব কথা শেয়ার করা যায়।

নির্মাতা শ্রাবণ চক্রবর্তী দিপু জানান, শিগগিরই নাটকটি একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে প্রচার হবে। নাটকটির বিভিন্ন চরিত্রে আরো অভিনয় করেছেন শবনম পারভীন, মাহমুদুল ইসলাম মিঠু, ইউসুফ বাশারসহ অনেকে। এবারের ঈদে সজল অভিনীত চয়নিকা চৌধুরী পরিচালিত ‘আহা প্রেম’, সকাল আহমেদের ‘বুুকের মধ্যে বন্ধু একজন’ নাটকে সজলের অভিনয় দর্শকের মধ্যে বেশ সাড়া ফেলে। অন্যদিকে, সাফায়েত মনসুর রানা পরিচালিত ‘আমার নাম মানুষ’ এবং সেতু আরিফের ‘বুকের মধ্যে আগলে রেখো’তে অপর্ণার অভিনয় বেশ প্রশংসিত হয়।

"