সজল-প্রসূনের ‘অপেক্ষার শেষ সময়’

প্রকাশ : ১২ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

বিনোদন প্রতিবেদক
ama ami

জেলা শহরের পাশের এলাকায় শহরের মতোই উন্নত একটি গ্রাম। গ্রামের বড় বাড়িগুলোর মধ্যে মিয়াজি বাড়ি বেশ নাম করা। মিয়াজি বাড়ির আ. বাছেদ মিয়াজি ইউনিয়ন পরিষদ মেম্বার থাকাকালীন একজন প্রতিবেশীকে নিয়ে এক দিন রাতে বাড়ি ফিরছেন। চলার পথেই হঠাৎ শিশুর কান্নার আওয়াজ পান। কাছে গিয়ে দেখেন এক বছর বয়সী একটি মেয়েশিশু কাঁদছে। শিশুটিকে কোলে নিয়ে নিজের চোখের জল ধরে রাখতে পারেননি তিনি। বুকে জড়িয়ে নিয়ে যান নিজের বাড়িতে। আজ সেই শিশুটি হাওয়াইন গিটারে স্বর্ণপদক নিয়ে ভোলায় আসছে। সন্ধ্যায় লঞ্চে এসে কেবিনে ব্যাগ রেখে বাইরে দাঁড়ায় সাজিদ। কিছুক্ষণ পর চোখে পড়ে অষ্টাদশী কন্যা তুলি আপন মনে দাঁড়িয়ে আছে। রাতে ক্যান্টিনে আবার দেখা হয় তাদের। তুলির ফোনের কথোপকথনে সাজিদ জানতে পারে তুলি হাওয়াইন গিটারে স্বর্ণপদক পায়। লঞ্চ থেকে নেমে জোনাল আফিসে প্রবেশ করল সাজিদ। কাজে মন বসছে না। চোখের সামনে কেবল তুলির মুখ ভাসে। ভালোবেসে ফেলেছে মেয়েটাকে। মা সারা দিন বিয়ে বিয়ে করে। এবার মায়ের ইচ্ছা পূরণ হবে। এক দিন সুযোগ করে কথা বলার চেষ্টা করে সাজিদ। স্থানীয় মস্তান টাইপের এক ছেলে পছন্দ করত তুলিকে। সেই ছেলে কর্তৃক লাঞ্ছিত হয় সাজিদ। তাতে তুলির মনে দাগ কাটে। এরপরই ঘটতে থাকে নাটকীয় সব ঘটনা। পাশাপাশি এগিয়ে যেতে থাকে ‘অপেক্ষার শেষ সময়’ নাটকের গল্প।

ইফতেখারুল ইসলাম জনের রচনা ও পরিচালনায় নাটকটিতে অভিনয় করেছেন সজল, প্রসূন আজাদ, বাধন তালুকদার, মম শিউলি, ইভান তালুকদার, সাঈদ লিটনসহ অনেকে। আজ রাত ৮টায় নাটকটি আরটিভিতে প্রচারিত হবে।

"