সিলেটে নির্বাচনে লড়বেন একডজন ‘স্বশিক্ষিত’ প্রার্থী

জেলায় মোট ভোটার ২২ লাখ ৫৪ হাজার ৩১৭ জন

প্রকাশ : ০৮ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০

মুহাজিরুল ইসলাম রাহাত, সিলেট

সিলেটের ৬টি আসনে লড়তে এবার মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৬৬ প্রার্থী। এসব প্রার্থীদের হলফনামায় দেয়া তথ্যমতে, ১২ প্রার্থী নিজেদের স্বশিক্ষিত বলে দাবি করেছেন। স্নাতক ডিগ্রিধারী রয়েছেন এক ডজন প্রার্থী, মাস্টার্স ও দাওরায়ে হাদিস (সমমান এমএ) রয়েছেন ১২, ৩ ডক্টরেটসহ তাকমিল ফিল হাদীস ও কামিল পাস রয়েছেন ১১, বিএ-এলএলবিধারী (আইন) ৭ জন প্রার্থী রয়েছেন।

এছাড়াও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যন্ত শিক্ষাগত যোগ্যতা আছে ৬ জনের। অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত দুইজন, মাধ্যমিকের গন্ডি পেরিয়েছেন ৪ প্রার্থী। স্বশিক্ষিতের তালিকায় রয়েছেন, জাতীয় পার্টির ৩, বিএনপি, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম, ইসলামি শাসনতন্ত্র আন্দোলন ও স্বতন্ত্রপ্রার্থী রয়েছেন ২জন করে এবং গণফোরামের একজন। ডক্টরেট ডিগ্রীধারী তিনজন হলেন, সিলেট-১ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ড. একে আব্দুল মোমেন, সিলেট-২ আসনে এনামুল হক সর্দার (স্বতন্ত্র) ও সিলেট-৫ আসনে আহমদ আল ওয়ালী (স্বতন্ত্র )।

স্বশিক্ষায় শিক্ষিত প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন, সিলেট-১ আসনে জাতীয় পার্টির মাহবুবুর রহমান, সিলেট-২ আসনে ইসলামী আন্দোলনের আমির উদ্দিন ও গণফোরামের মোকাব্বির খান, সিলেট-৩ আসনে সতন্ত্র প্রার্থী জুনায়েদ মোহাম্মদ, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের নজরুল ইসলাম, সিলেট-৪ আসনে জাপা‘র এম. ইসমাইল আলী আশিক, পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য এটিইউ তাজ রহমান, সিলেট-৫ আসনে জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের উবায়দুল্লাহ ফারুক, বিএনপির শরীফ আহমদ লস্কর, স্বতন্ত্র ফয়জুল মুনীর, সিলেট-৬ আসনে বিএনপির হোসেন খান হেলাল ও ইসলামী আন্দোলনের আজমল হোসেন।

এছাড়াও মাধ্যমিকের গন্ডি পেরোতে না পারা (৮ম শ্রেণি) দুই প্রার্থী হলেন সিলেট-২ আসনে বিশ্বনাথ উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান ও সিলেট-৩ আসনের ইসলামী আন্দোলনের এম এ মতিন বাদশা।

এদিকে সিলেটের ৬টি আসনে চূড়ান্ত ভোটার তালিকায় নারী ভোটারের সংখ্যা বাড়লেও কমেছে পুরুষ ভোটার। অপরদিকে একটি অস্থায়ী কেন্দ্রসহ ৯৯১টি ভোটকেন্দ্র ও ২২৫টি অস্থায়ী কক্ষসহ ৪৭৫৪টি ভোট কক্ষ নির্ধারণ করা হয়েছে। চূড়ান্ত তালিকায় ভোট কক্ষ কমেছে ১০৯টি।

নির্বাচন কমিশনের তথ্যমতে, জেলার ৬টি আসনে মোট ভোটার ২২ লাখ ৫৪ হাজার ৩১৭ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১১ লাখ ৫০ হাজার ৪১০ জন ও নারী ভোটার ১১ লাখ ৩ হাজার ৯৪৪ জন। আগের খসড়া তালিকা নিরিখে চূড়ান্ত তালিকায় বেড়েছে ২ হাজার ২৩ জন ভোটার। নতুন এ ভোটার তালিকায় পুরুষ ভোটার ১ হাজার ২৩৪ জন কমলেও নারী ভোটার বেড়েছে ৩২৯৪ জন। চূড়ান্ত তালিকা অনুযায়ী দশম সংসদের পর ভোটার বেড়েছে ২ লাখ ৯১ হাজার ৩৪৩ জন। সিলেটের সিনিয়র জেলা নির্বাচনী কর্মকর্তা খোরশেদ আলমের এ তথ্য জানিয়েছেন।

সিলেট-১ (সিটি করপোরেশন ও সদর) আসনে মোট ভোটার ৫ লাখ ৪৪ হাজার ২১৯ জন। এরমধ্যে পুরুষ ২ লাখ ৮৬ হাজার ৬৬৯ জন নারী ভোটার ২ লাখ ৫৭ হাজার ৫৭৫ জন। এ আসনে ভোটার বেড়েছে ১ হাজার ২৮৩ জন। সিলেট-২ (বিশ্বনাথ-ওসমানীনগর) আসনে মোট ভোটার ২ লাখ ৮৬ হাজার ৫৮৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১ লাখ ৪৫ হাজার ৭ জন এবং নারী ভোটার ১ লাখ ৪১ হাজার ৫৭৯ জন।

সিলেট-৩ (দক্ষিণ সুরমা-ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ) আসনে মোট ভোটার ৩ লাখ ২৩ হাজার ৬৬৬ জন। এরমধ্যে পুরুষ এক লাখ ৬৩ হাজার ৫২০ জন ও নারী ভোটার ১ লাখ ৬০ হাজার ১৪৬ জন। সিলেট-৪ (কোম্পানীগঞ্জ-জৈন্তাপুর ও গোয়াইনঘাট) আসনে মোট ভোটার ৩ লাখ ৮২ হাজার ২৩১ জন। এরমধ্যে পুরুষ ১ লাখ ৯৬ হাজার ৫৬৫ ও নারী ভোটার ১ লাখ ৮৫ হাজার ৬৬৬ জন।

সিলেট-৫ (কানাইঘাট-জকিগঞ্জ) আসনে ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ২৪ হাজার ৫১০ জন। এরমধ্যে পুরুষ এক লাখ ৬৩ হাজার ২৮০ জন ও নারী ভোটার এক লাখ ৬১ হাজার ২৩০ জন। সিলেট-৬ (বিয়ানীবাজার-গোলাপগঞ্জ) আসনে ৩ লাখ ৯৩ হাজার ১১৫ জন ভোটার। এর মধ্যে পুরুষ এক লাখ ৯৫ হাজার ৩৬৯ জন ও নারী ভোটার ১ লাখ ৯৭ হাজার ৭৪৬ জন।

"