চট্টগ্রাম-২ ফটিকছড়ি

নৌকা কার : ভাণ্ডারী না পেয়ারু?

প্রকাশ : ০৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০

ফটিকছড়ি (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি

চট্টগ্রাম-২ (ফটিকছড়ি) সংসদীয় আসনে নৌকা মার্কা কে পেতে যাচ্ছেন, এ নিয়ে দোলাচলে আছেন দুই প্রার্থী। তারা হলেন মহাজোটের মনোনীত প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভা-ারী ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা এ.টি. এম পেয়ারুল ইসলাম।

আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পান নজিবুল বশর ভান্ডারী ত্বরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান নজিবুল বশর। তার করা মামলায় জামায়াতের নিবন্ধন বাতিলের প্রস্তাব উঠে। তবে একই আসনে স্বতন্ত্র হিসেবে মনোনয়ন জমা দেন আওয়ামী লীগ নেতা পেয়ারুল ইসলাম। গত শনিবার এক বিশাল শোডাউন করে উপজেলা আওয়ামী লীগ দাবি জানায়, দলীয় প্রার্থীকে নৌকা মার্কা দেওয়া হয়।

উপজেলা আ.লীগ নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, পেয়ারুর সঙ্গে আছে উপজেলা আওয়ামী লীগ আর ভা-ারীর পক্ষে আছে ফটিকছড়ি আওয়ামী পরিবার। ফটিকছড়িতে দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী রাজনীতি এ দুই নামে বিভক্ত। আওয়ামী পরিবারের নেতৃত্বে আছেন উপজেলা চেয়ারম্যান তৌহিদুল আলম বাবু ও সাবেক ছাত্রনেতা আবু তৈয়ব। ফটিকছড়ি জুড়ে তাদেরও একটা বিশাল নেটওয়ার্ক আছে।

দীর্ঘ দিন ধরে সরাসরি আওয়ামী রাজনীতির সঙ্গে জড়িত পেয়ারুল ইসলাম ইতোপূবে উপজেলা চেয়ারম্যান ছিলেন। তবে ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ নিরঙ্কুশ সংখ্যা গরিষ্ট আসনে পেরেও নির্বাচনে হেরে যান তিনি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেক আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, পেয়ারুল ইসলামের দৌড় ৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত। বহিস্কারের ভয়ে ৯ তারিখ তিনি ঠিকই প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নেবেন।

এ ব্যাপারে পেয়ারুল ইসলাম বলেন, তিনি আওয়ামী লীগের হয়ে অবশ্যই নির্বাচন করবেন। তিনি আরও বলেন, যথাসময়ে প্রার্থীও পরিবর্তন হয়ে যাবে।

"