অগ্রগতির ধারা অটুট রাখতে হবে

প্রকাশ : ১১ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক
ama ami

উন্নয়ন ও অগ্রগতির পাশাপাশি বৈশ্বিক গণতন্ত্র সূচকে চার ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ। যা নিঃসন্দেহে একটি সুসংবাদ। দেশে গণতন্ত্র নেই বলে এত দিন বিরোধী দল যে অভিযোগ করে আসছিল, বস্তুত এই অগ্রগতির ফলে তাদের কথা ভ্রান্ত প্রমাণিত হলো। বুধবার লন্ডনভিত্তিক ব্রিটিশ বহুজাতিক গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠান ইকোনমিস্ট গ্রুপের বিজনেস ইউনিট ‘ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিট’ (ইআইইউ) ২০১৮ সালের এই বৈশ্বিক গণতন্ত্র সূচক প্রকাশ করে। এবারের সূচকে বাংলাদেশ ৫ দশমিক ৫৭ পয়েন্ট নিয়ে ৮৮তম অবস্থানে আছে। এক বছর আগে ৫ দশমিক ৪৩ স্কোর নিয়ে ছিল ৯২তম স্থানে। কিন্তু বাংলাদেশ এবারের সূচকে সে স্থানে নেই, বরং ঘুরে দাঁড়িয়েছে। গত ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে অনিয়ম হয়েছে বলে রাজনৈতিক বিরোধীদের অভিযোগ ও সমালোচনার পরও গণতান্ত্রিক সূচকে বাংলাদেশের এই অগ্রগতি নিঃসন্দেহে জাতির জন্য একটি সুসংবাদ।

ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিট নির্বাচনী ব্যবস্থা ও বহুদলীয় অবস্থান, সরকারে সক্রিয়তা, রাজনৈতিক অংশগ্রহণ, রাজনৈতিক সংস্কৃতি এবং নাগরিক অধিকারÑ এ পাঁচ মানদ-ে একটি দেশের পরিস্থিতি বিবেচনা করে ১০ ভিত্তিক এ সূচক তৈরি করে। সেক্ষেত্রে সংগঠটি ২০০৬ সালে এ সূচক প্রকাশ শুরু করার পর এবারের সূচকে উল্লখ করা হয়েছে, গণতন্ত্রের বিচারে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের চেয়ে ভালো অবস্থায় আছে ভারত ও শ্রীলঙ্কা। ভারত ৭ দশমিক ২৩ স্কোর নিয়ে তালিকার ৪১তম এবং শ্রীলঙ্কা ৬ দশমিক ১৯ স্কোর নিয়ে ৭১তম অবস্থানে রয়েছে। তবে ভারতের একধাপ উন্নতি হলেও শ্রীলঙ্কা পিছিয়েছে ৯ ধাপ। প্রতিষ্ঠানটি বলছে, তাদের সমীক্ষায় ২০১৮ সালে বৈশ্বিক স্কোর হয়েছে আগের বছরের মতোই ৫ দশমিক ৪৮। অর্থাৎ মোটা দাগে বিশ্বে গণতন্ত্রের দশায় বড় কোনো নড়চড় হয়নি। এবারের সূচকে যেখানে ৪২টি দেশের অবস্থানের অবনতি ঘটেছে, সেখানে ৪৮টি দেশ নিজেদের রাজনৈতিক পরিবেশের উন্নতি ঘটাতে পেরেছে। উন্নতির ছাপ পড়েছে এশিয়ার দেশগুলোতেই বেশি। এর মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান একটি আশাব্যঞ্জক পর্যায়ে পৌঁছেছে বলে রাষ্ট্রবিজ্ঞানীদের ধারণা।

তাদের মতে, এই অগ্রগতি যেমন ধরে রাখতে হবে, তেমনি তার উন্নয়নে আরো সচেষ্ট থাকতে হবে। যাতে শুধুৃ এশিয়া নয়, গোটা বিশ্ব পরিম-লে বাংলাদেশ আজ উন্নয়ন ও অগ্রগতির যে চমক দেখাচ্ছে, গণতন্ত্র চর্চা ও প্রতিষ্ঠায়ও যেন সে চমক অব্যাহত থাকে। পাশাপাশি অনেক চড়াই-উতরাই পেরিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ অগ্রগতির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। তবে উন্নয়নের গতি দেশি-বিদেশি অপশক্তিগুলো বারবারই রোধ করার চেষ্টা করেছে, কিন্তু বাঙালির লড়াকু মনোভাবের কারণে তারা তা পারেনি। বাঙালি ঐক্যবদ্ধ থাকলে কেউ কোনো দিনই এই অগ্রযাত্রা ব্যাহত করতে পারবে না। আমরা আশা করি, সব ধরনের হিংসা-বিদ্বেষ ভুলে দেশের অগ্রগতির ধারা অটুট রাখতে সবাইকে সচেষ্ট থাকতে হবে।

"