গণবিশ্ববিদ্যালয়ে করোনা ভাইরাস শীর্ষক সেমিনার

প্রকাশ : ০৮ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক

গণবিশ্ববিদ্যালয়ে মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের উদ্যোগে করোনা ভাইরাস নিয়ে ‘স্যুপ টু সিক বেড’ (Soup to sick bed) শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ৭ মার্চ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইকিউএসি এর সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত এ সেমিনারে মূল বক্তা ছিলেন মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. বিজন কুমার শীল।

অধ্যাপক ড. বিজন কুমার শীল বলেন, শরীরে এনজাইমটা এসিই-২ নামক পদার্থের অনুপাত যাদের বেশি তাদের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বেশি। সে তুলনায় বাংলাদেশীদের খাদ্যাভাস এবং এনজাইমটা এসিই-২ এর অনুপাত শরীরে কম থাকায় এই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কম। তবে বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস মহামারি আকার ধারণ করায় এবং কার্যকর কোনো চিকিৎসা না থাকায় এ রোগের লক্ষণ, প্রতিকার ও প্রতিরোধ সম্পর্কে আমাদের সচেষ্ট থাকতে হবে।

ড. বিজন কুমার শীল আরো বলেন, ২০০৩ সালে সার্স করোনা নামক যে ভাইরার্সের প্রাদুর্ভাব হয়েছিল ২০১৯ সালে আক্রমণকারী করোনাভাইরাসের সঙ্গে ৮০ ভাগ মিল রয়েছে। শুকনো কাশি, ডায়রিয়া, নিউমোনিয়া হলো করোনাভাইরাসের প্রাথমিক লক্ষণ যা আমাদের ফুসফুস, পাকস্থলী, লিভার ও কিডনিকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে। যাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল এবং যারা ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপসহ অন্যান্য রোগে ভুগছেন এ রকম বয়স্ক ব্যক্তিদের আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বেশি থাকে। বিশেষ মাস্ক, সঠিকভাবে হাত ধোয়া, আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে না আসা সর্বোপরি বিদেশ ভ্রমণ থেকে বিরত থেকে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়া অনেকাংশে কমানো যেতে পারে। এছাড়া প্রতিদিন সঠিক পরিমাণে ভিটামিন ‘সি’ গ্রহণের পরামর্শ দেন তিনি। এ ভাইরাস আক্রমণ থেকে রক্ষায় জনসচেতনা বিশেষ করে ব্যক্তিগত পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার বিকল্প নেই বলেও উল্লেখ করেন তিনি। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগীয় প্রধান ও শিক্ষকরা এতে উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

 

"