শাবিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

প্রকাশ : ০৪ মার্চ ২০২০, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক

শুক্রবার ২১ ফেব্রুয়ারি সকাল সাড়ে ৭টা থেকে দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। কর্মসূচির মধ্যে ছিল জাতীয় পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয় পতাকা উত্তোলন, শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, আলোচনা সভা, শিশু-কিশোরদের সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

সকাল সাড়ে ৭টায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনিক ভবনের সামনে জাতীয় পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয় পতাকা উত্তোলন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ। পরে সকাল ৭টা ৪০ মিনিটে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং সকাল ৮টায় বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

পরে সকাল সাড়ে ৮টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মিনি অডিটোরিয়ামে একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহিদ দিবস উদ্যাপন কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. আখতারুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ ।

এ সময় উপাচার্য ভাষাশহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, ‘বাংলা একটি উন্নত ভাষা। কিন্তু এ ভাষা ইন্টারনেটে ব্যবহারের ক্ষেত্রে তেমন উন্নত হয়নি। তাই শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় ইন্টারনেটে বাংলার ব্যবহার সহজ করতে কাজ করে যাচ্ছে। বাংলায় শুধু কথা বলেই ইন্টারনেটে কাজ করা যায়, সে রকম সফ্টওয়ার তৈরির জন্য কাজ চলছে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ ইশফাকুল হোসেনের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. আনোয়ারুল ইসলাম, শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি প্রফেসর ড. এসএম সাইফুল ইসলাম এবং গবেষণা কেন্দ্রের পরিচালক অধ্যাপক ড. এস এম সাইফুল ইসলাম ও শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. রাশেদ তালুকদার। আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য দেন সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যাপক ড. জহির বিন আলম, স্কুল অব এগ্রিকালচার অ্যান্ড মিনারেল সায়েন্সেসের ডিন অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ বেলাল উদ্দীন, অধ্যাপক ড. আবদুল আউয়াল বিশ্বাস, ১ম ছাত্রী হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. জায়েদা শারমীন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গবেষণা সেলের পরিচালক অধ্যাপক ড. আবদুল গণি, শাহ পরাণ হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান, অধ্যাপক ড. সৈয়দ আশরাফুর রহমান, আলোচনা সভা বাস্তবায়ন উপকমিটির আহ্বায়ক সহযোগী অধ্যাপক মো. মুহিবুল আলম, অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মুর্শেদ আহমেদ এবং কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি সাদেক আহমেদ। আলোচনা সভা শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের মিনি অডিটোরিয়ামে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা এবং বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে মনোজ্ঞ

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

 

"