ডিআইইউতে শহিদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

প্রকাশ : ০৪ মার্চ ২০২০, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক

যথাযোগ্য মর্যাদায় ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে (ডিআইইউ) মহান একুশে ফেব্রুয়ারি শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়। এ উপলক্ষে একুশে ফেব্রুয়ারি শুক্রবার ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির শিক্ষক, কর্মকর্তা ও শিক্ষার্থীরা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে ভাষাশহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে। সকাল ৬টায় ধানমন্ডির মূল ক্যাম্পাস থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. গোলাম মওলা চৌধুরী, স্টুডেন্ট অ্যাফেয়ার্সের পরিচালক সৈয়দ মিজানুর রহমান রাজু ও ঊর্ধ্বতন সহকারী পরিচালক ( গণসংযোগ) মো. আনোয়ার হাবিব কাজলের নেতৃত্বে একটি র‌্যালি বের হয়ে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এসে শহিদ বেদিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে মহান ভাষা আন্দোলনে শহিদদের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করা হয়।

এ ছাড়া আশুলিয়ায় একাডেমিক ডিরেক্টর ড. এবিএম কামাল পাশা, অনিল কুমার পাল ও ডেপুাট রেজিস্ট্রার ইসহাক মিজির নেতৃত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাসের শহীদ মিনারেও পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে

ভাষাশহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে। এর পাশাপাশি ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সির্টির শিক্ষার্থীদের সংগঠন বিভিন্ন ক্লাবের উদ্যোগে চেতনায় একুশ শিরোনামে রাউন্ড টেবিল বৈঠক, কবিতা আবৃত্তি, ফ্ল্যাশ মব, নুত্যানুষ্ঠান ও নাটকের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে বক্তারা, শিক্ষার্থীদের বাংলা ভাষার বিশুদ্ধ বানান, উচ্চারণ ও প্রয়োগের বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বন করার পরামর্শ দিয়ে মাতৃভাষার মর্যাদাকে সমুন্নত রাখার পাশাপাশি পরম আদরে হৃদয়ে মাতৃভাষা বাংলার শক্ত গাঁথুনি তৈরির আহ্বান জানান। বক্তারা বলেন, পৃথিবীতে মাতৃভাষার মর্যাদা রক্ষার জন্য একমাত্র বাঙালিরাই প্রাণ বিসর্জন দেওয়ার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে এবং তাদের সেই আত্মত্যাগের কারণেই একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষার স্বীকৃতি লাভ করেছে, জাতি হিসেবে আমাদের গর্বিত করেছে। তাই আমাদেরই মাতৃভাষার প্রতি সবচেয়ে বেশি শ্রদ্ধাশীল হতে হবে; যা বিশ্বের অন্যান্য দেশ ও ভাষাভাষী মানুষ অনুসরণ করবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

 

"