সিআইইউতে শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ বিষয়ে কর্মশালা

প্রকাশ : ০৯ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক

চিটাগং ইনডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটিতে (সিআইইউতে) অনুষ্ঠিত হয়েছে ‘শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ’ শীর্ষক দিনব্যাপী কর্মশালা। সম্প্রতি সিআইইউর ইনট্রিনসিক ফিন্যান্স ক্লাব নগরের জামাল খানের সিআইইউ ক্যাম্পাসের অডিটরিয়ামে এই কর্মশালার আয়োজন করে। অনুষ্ঠানটি সার্বিকভাবে পৃষ্ঠপোষকতা করে লংকাবাংলা সিকিউরিটিস লিমিটেড। এতে বিজনেস স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা ছাড়াও লংকাবাংলা সিকিউরিটিসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে শেয়ারবাজারের প্রাথমিক বিশ্লেষণ, ক্যান্ডেলস্টিক ফরমেশন, পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের ধরন, পোর্টফোলিও, ব্রোকারেজ হাউস, বিও অ্যাকাউন্ট ইত্যাদি নিয়ে আলোচনা করা হয়।

কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন লংকা বাংলা সিকিউরিটিস লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার ও আঞ্চলিক প্রধান মোহাম্মদ আমির হোসেন। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, ‘শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করে সফল হতে চাইলে প্রয়োজন কঠোর পরিশ্রম আর সময়। আবেগকে নিয়ন্ত্রণে রেখে ভয়কে জয় করে সামনে এগিয়ে যেতে হবে।’ তিনি আরো বলেন, ‘রাতারাতি বড়লোক হয়ে যাব পুঁজি বিনিয়োগ করলে-এই ধারণা থেকে সরে আসতে হবে সবাইকে।’ শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করার আগে বেশি বেশি বাজার যাচাই, তথ্য সংগ্রহ, অভিজ্ঞতা বৃদ্ধি, চ্যালেঞ্জ নেওয়ার মানসিকতা গড়ে তোলাসহ অন্য বিষয়গুলোর দিকে মনোযোগ দেওয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

সভাপতির বক্তব্যে সিআইইউয়ের বিজনেস স্কুলের সহযোগী অধ্যাপক ড. ইমন কল্যাণ চৌধুরী ব্লক চেইন টেকনোলজির মাধ্যমে আগামীতে শেয়ারবাজারের পরিবর্তনের দিকগুলো তুলে ধরেন। কর্মশালায় আরো বক্তব্য দেন লংকা বাংলা সিকিউরিটিস লিমিটেডের সিনিয়র ম্যানেজার আনোয়ার শাহাদাত, ম্যানেজার দিপক কুমার পালিত, আলোচক সিনিয়র অফিসার মোহাম্মদ তামজিদ উল্লাহ, কৌশিক বিশ্বাসসহ আরও অনেকে।

অনুষ্ঠান শেষে ড. ইমন কল্যাণ চৌধুরী প্রধান অতিথির হাতে ইনট্রিনসিক ফিন্যান্স ক্লাবের পক্ষ থেকে ক্রেস্ট তুলে দেন। পরে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের ভেতর সার্টিফিকেট বিতরণ করা হয়। জানতে চাইলে সিআইইউর ইনট্রিনসিক ফিন্যান্স ক্লাবের ফ্যাকাল্টি অ্যাডভাইজার ড. সৈয়দ মনজুর কাদের বলেন, ‘ঝুঁকি এড়িয়ে পুঁজিবাজার থেকে ভালো মুনাফা করার জন্য বিনিয়োগকারীদের অনেকগুলো বিষয় নিয়ে জানতে হয়। আমরা শিক্ষার্থীদের সেসব বিষয় সম্পর্কে জানাতেই এই কর্মশালার আয়োজন করেছি।’ ইনট্রিনসিক ফিন্যান্স ক্লাব শিক্ষার্থীদের পাঠ্যবইয়ের বাইরে অভিজ্ঞতামূলক জ্ঞানের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিতে সবসময় বদ্ধপরিকর বলে উল্লেখ করেন তিনি। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

 

"