ফেনী ইউনিভার্সিটির উচ্চশিক্ষা বিষয়ক সেমিনার

প্রকাশ : ১৪ জুলাই ২০১৯, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক

চট্টগ্রামের মীরসরাই, জোরারগঞ্জ, বারাইয়ারহাটসহ উত্তর চট্টগ্রামে উচ্চশিক্ষা বিস্তারে কাজ করছে ফেনী ইউনিভার্সিটি। উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা ও দূরত্ব কম হওয়ায় এসব অঞ্চলের শিক্ষার্থীরা উচ্চশিক্ষা গ্রহণের ক্ষেত্রে ফেনীর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে অগ্রাধিকার দিচ্ছেন। তাই এ অঞ্চলের মানুষের জন্য ফেনী ইউনিভার্সিটি আর্শীবাদস্বরূপ। ৩ জুলাই মীরসরাই বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের হলরুমে উচ্চশিক্ষাবিষয়ক এক সেমিনারে বক্তারা এসব কথা বলেন। ফেনী ইউনিভার্সিটি ও মীরসরাই বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের যৌথ আয়োজনে সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ফেনী ইউনিভার্সিটির উপাচার্য, বিশিষ্ট মাৎস্যবিজ্ঞানী ও শিক্ষাবিদ ড. সাইফুদ্দিন শাহ। উপাচার্য বলেন, ফেনী ইউনিভার্সিটিতে যে টিউশন ফি গ্রহণ করা হয় তা অন্যান্য প্রাইভেট ইউনিভার্সিটির ফি’র চেয়ে অনেক কম। আর বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে আমাদের কিছু সামাজিক দায়বদ্ধতা আছে। দরিদ্র, সুবিধাবঞ্চিত অথচ মেধাবী, এমন শিক্ষার্থীরা যেন ঝরে না পড়ে, সেদিকে আমরা লক্ষ্য রাখি। আমাদের শিক্ষার্থীরা যেন ভবিষ্যতের কর্মক্ষেত্রে নেতৃত্ব দিতে পারে, সেভাবেই আমরা তাদের গড়ে তুলতে চাই। দক্ষ মানবসম্পদ তৈরি করাই ফেনী ইউনিভার্সিটির মূল লক্ষ্য। তাই শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন পর্যায়ে আমরা স্কলারশিপ দিয়ে থাকি। মুক্তিযোদ্ধার কোটা ও জাতীয় পর্যায়ে খেলাধুলায় অবদান রাখা শিক্ষার্থীদেরও আমরা বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা দিয়ে থাকি। পড়ালেখার তুলনামূলক খরচ এবং ইউনিভার্সিটির শিক্ষার মান ও সুযোগ-সুবিধার কথা বিবেচনায় রেখে উচ্চশিক্ষার জন্য তিনি এতদাঞ্চলের ছাত্রছাত্রীদের ফেনী ইউনিভার্সিটিকে তাদের পছন্দের তালিকায় রাখার আহ্বান জানান। মীরসরাই বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অধ্যক্ষ মো. নুরুল আফসারের সভাপতিত্বে সেমিনারে ফেনী ইউনিভার্সিটির ট্রেজারার তায়বুল হক ও ইউনিভার্সিটির রেজিস্ট্রার এ এস এম আবুল খায়ের বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। ফেনী ইউনিভার্সিটির আইন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মোহাম্মদ মনিরুজ্জামানের সঞ্চালনায় কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য কুইজ প্রতিযোগিতা ও ফেনী ইউনিভার্সিটির ওপর একটি তথ্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

 

"