এসএসইএএসআর সম্মেলনের অতিথিদের বাংলার প্রাচীন ঐতিহ্য পরিদর্শন

প্রকাশ : ২৭ জুন ২০১৯, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক

ইউল্যাব আয়োজিত অষ্টম এসএসইএএসআর আন্তর্জাতিক সম্মেলনে বিশ্বের ৩০টি দেশ থেকে আগত অংশগ্রহণকারী শিক্ষক ও গবেষকগণ বাংলাদেশের প্রাচীন ঐতিহ্য পরিদর্শন করেছেন। আগত অতিথিরা ১৫ জুন শনিবার বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন করেন। ১৬ জুন রোববার তারা মহাস্থানগড়ের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করেন। ১৯ জুন পর্যন্ত তারা সেখানে অবস্থান করেন। সোমপুর মহাবিহার, পাহাড়পুর প্রতœতাত্ত্বিক সাইট, পাহাড়পুর জাদুঘর, পাহাড়পুরে অবস্থিত স্থাপত্য নিদর্শনের ধ্বংসাবশেষ সত্যপীরের ভিটা, প্রাচীন প্রতœতাত্ত্বিক স্থান জগদ্দল মহাবিহার, খেরুয়া মসজিদ পরিদর্শন করেন। এ ছাড়া বগুড়া সদর থানায় গোকুল গ্রামে খননকৃত প্রতœস্থল গোকুল মেধ, শিবগঞ্জ উপজেলার বিহার হাটে অবস্থিত ভাসু বিহার, দুই তালাবিশিষ্ট কাঁদা মাটির ঘর পরিদর্শন করেন। এসএসইএএসআর আন্তর্জাতিক সম্মেলনের সভাপতি ও ইউল্যাবের সেন্টার ফর আর্কিওলজিক্যাল স্টাডিজের পরিচালক অধ্যাপক ড. শাহনাজ হুসনে জাহান এই সফরের নেতৃত্ব দেন। এর আগে গত ১২ জুন অতিথিরা ঢাকেশ্বরী মন্দির, বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর, স্বাধীনতা জাদুঘর, লালবাগের কেল্লাসহ নানা স্থানে ভ্রমণ করেন।

১৩ জুন থেকে ১৬ জুন পর্যন্ত চলমান ‘নদী ও ধর্ম’ শীর্ষক এই আন্তর্জাতিক সম্মেলনে বিশ্বের ৩০ দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও গবেষকগণ ১৫টি শিরোনামের অধীনে ৩৭টি প্যারালাল সেশনের মাধ্যমে মোট ১৭০টি গবেষণা প্রবন্ধ পাঠ করেন। আয়োজকরা আশা প্রকাশ করেন এই সম্মেলনের মাধ্যমে শতাধিক দেশি ও বিদেশি বিশেষজ্ঞের উপস্থিতিতে দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় ধর্ম ও সংস্কৃতিবিষয়ক

গবেষণায় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে একটি টেকসই ও কার্যকর যোগাযোগ তৈরি হয়েছে যা বাংলাদেশের জন্য আন্তর্জাতিক একাডেমিক পরিম-লে নিজেদের তুলে ধরার জন্য একটি সুবর্ণ সুযোগ। এই সম্মেলনকে সাফল্যমন্ডিত করার জন্য লোকশিল্প মেলা, বই মেলা এবং ইউল্যাবের ছাত্রদের ‘বাংলাদেশের নদী’ শিরোনামে আলোকচিত্র প্রদর্শনী ও ‘গ্রুপ টেম্পল অব পুঠিয়া’ শিরোনামে ট্রাডিশনাল ফটো গ্যালারির আলোকচিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

 

"