সিআইইউতে ইন্টারনেট বিষয়ক সেমিনার

প্রকাশ : ২১ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক

অনুষ্ঠানের শিরোনাম ছিল ‘ইন্টারন্টে অব থিংস’ (আইওটি)। অর্থাৎ বস্তুগত বিষয়গুলোর সঙ্গে ইন্টারনেটের সংযোগ ঘটিয়ে কীভাবে মানুষের জীবনধারায় পরিবর্তন আনা যায়। প্রতিটি উদাহরণ আর ঘটনায় শিক্ষার্থীরা যেন হচ্ছিলেন আনন্দিত-উচ্ছ্বসিত। চিটাগং ইনডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটিতে (সিআইইউতে) অনুষ্ঠিত ইন্টারনেটের সঙ্গে বস্তুগত বিষয়ের সমন্বয় করে কীভাবে নতুনত্ব সৃষ্টি করা যায়, তা নিয়ে ৯ এপ্রিল মঙ্গলবার হয়ে গেল জমজমাট

সেমিনার।

সিআইইউ ক্যাম্পাসের অডিটরিয়ামে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ এই সেমিনারের আয়োজন করে। এ সময় বিজ্ঞানমনস্ক শিক্ষার্থী, ইন্টারনেট পটু, ফেসবুকে সক্রিয় ছাত্রছাত্রী ও সিআইইউর স্কুল অব সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তার বক্তব্যে বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান বলেন, যুগের পরিবর্তনের সঙ্গে ইন্টারনেটের ব্যবহারও বাড়ছে। আর তাতেই আরো সহজ হয়ে যাচ্ছে পুরো পৃথিবী।

তিনি আরো বলেন, আগামী দিনগুলোতে আমাদের শিক্ষার্থীদের আরো চৌকস হতে হবে। মুখস্থ পড়ার বাইরে সৃষ্টিশীল কাজে নিজেদের মেধার বিকাশ ঘটাতে হবে। তাদের সবাইকে হতে হবে প্রবলেম সলভার বা সমাধানকারী। অনুষ্ঠানে মুনির হাসান ইন্টারনেটকে কাজে লাগিয়ে বস্তুগত বিষয়গুলোর নতুন ব্যবহারের চমৎকার উদাহরণ উপস্থাপন করেন।

সভাপতির বক্তব্যে কমপিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারি অধ্যাপক আতিকুর রহমান বলেন, ধারণাটি নতুন। ঘরে থাকা বস্তুগুলোর সঙ্গে যদি প্রযুক্তির সংযোগ ঘটে তাহলে ব্যাপারটি দারুণ কিছু হয়। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আরো বক্তব্য দেন সহযোগী অধ্যাপক ড. আসিফ ইকবাল। পরে প্রধান বক্তা মুনির হাসানের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেওয়া হয়। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

 

"