বিশ্ব শিশু দিবস উপলক্ষে ‘সৌহার্দ্য’ শিশু উৎসব উদযাপন

প্রকাশ : ০৫ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্ব শিশু দিবস উপলক্ষে ২০ নভেম্বর মঙ্গলবার সাভারের আশুলিয়াস্থ ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যাম্পাসে সৌহার্দ্য শিশু উৎসব ২০১৮-এর আয়োজন করে সৌহার্দ্য। সৌহার্দ্য একঝাঁক তরুণ-তরুণীর সমন্বয়ে গঠিত একটি অলাভজনক সামাজিক সংগঠন। সৌহার্দ্য স্কুলের একঝাঁক সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য এটি ছিল আনন্দের উৎসব এবং সৌহার্দ্যরে সদস্য, স্বেচ্ছাসেবী ও শুভানুধ্যায়ীদের সঙ্গে তাদের মিলনমেলা; যেখানে সবাই মিলে হেসে, খেলে, আনন্দে পুরোটা দিন কাটায়। উৎসবের আয়োজনের মধ্যে ছিল শিশুদের ফুল দিয়ে বরণ, কেক কাটা, মজাদার সব খেলার প্রতিযোগিতা, একসঙ্গে দুপুরের খাবার, অফুরন্ত হাসি-আনন্দ, গানের মূর্ছনা, মেহেদি উৎসব বিজয়ী প্রতিযোগীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ ও সব শিশুর মধ্যে খেলনা বিতরণসহ নানা আয়োজন। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. ইউসুফ এম ইসলামও একসময় আনন্দ ভাগাভাগি করতে সুবিধাবঞ্চিত এসব শিশুর সঙ্গে যোগ দেন। উপাচার্য মহোদয়ের উপস্থিতি সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের আনন্দের মাত্রা কয়েক গুণ বাড়িয়ে দেয়। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সৌহার্দ্যরে শিশুরা গান, নাচ ও কবিতা আবৃত্তি করে। শিশু অধিকার রক্ষা ও বাস্তবায়ন এবং তাদের নিয়ে কাজ করাকে উৎসাহিত করতে ১৯৫৪ সালে জাতিসংঘ ২০ নভেম্বরকে বিশ্ব শিশু দিবস হিসেবে ঘোষণা করে। এরপর থেকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এ দিবসটি উদ্্যাপন করা হয়। সৌহার্দ্য জাতিসংঘ ঘোষিত এ দিবসটিতে প্রতি বছর সৌহার্দ্য স্কুলের শিশুদের নিয়ে শিশু উৎসবের আয়োজন করে থাকে।

ভালোবেসে পাশে দাঁড়াই- স্লোগানকে সামনে রেখে ২০১৫ সালের ১৭ জুন প্রতিষ্ঠিত এ সংগঠনটি শিক্ষা, সুবিধাবঞ্চিত শিশু ও অসহায় মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। ধানমন্ডির শংকরে অবস্থিত সৌহার্দ্য স্কুলের মাধ্যমে তারা ৪০ জন সুবিধাবঞ্চিত শিশুকে বিনামূল্যে শিক্ষাদান করে যাচ্ছে। পাঠ্যবইয়ের শিক্ষার পাশাপাশি তাদের কবিতা আবৃত্তি, সংগীত ও চিত্রাঙ্কনের পাঠদান করা হয়। সৌহার্দ্য শিশু উৎসবের মূল লক্ষ্য ছিল সুবিধাবঞ্চিত এই শিশুগুলোকে তাদের অধিকার সম্পর্কে সচেতন করা ও একদিনের জন্য হলেও তাদের মাঝে আনন্দ ছড়িয়ে দেওয়া ও তাদের জন্য নির্মল বিনোদনের ব্যবস্থা করা। কেননা, শিশুরাই দেশ ও জাতির কর্ণধার এবং তারাই প্রতিনিধিত্ব করবে আগামী বিশ্বের। সৌহার্দ্য শিশু উৎসব ২০১৮-এর ইভেন্ট পার্টনার হিসেবে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, ড্যাফোডিল ইনস্টিটিউট অব সোস্যাল সায়েন্সেস, শৈলী ইভেন্ট ও ডানো ক্যাপ্টেন চকলেট মিল্ক পাউডার এবং স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার হিসবে টেকট্রিক্স টেকনোলজিস ও টেকনো হেবেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

 

"