কুবি সেমিনারে বক্তারা

সাংবাদিকতায় দেখার চোখ থাকতে হয়

প্রকাশ : ০৮ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক

কবি, গবেষক ও কালের ধ্বনির সম্পাদক ইমরান মাহফুজ বলেছেন, ‘সাংবাদিক হওয়ার আগে আমাদের মানুষ হওয়া প্রয়োজন। পরীক্ষার খাতায় মার্জিন রেখে আমরা যেমন পরীক্ষকের মূল্যায়ন বা মন্তব্যের জায়গা রাখি, তেমনিভাবে জীবনের প্রতিটি পদক্ষেপে অন্যের সমালোচনা বা মন্তব্য গ্রহণ করার মানসিকতা রাখতে হবে।’ আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন কবি, গবেষক ও কালের ধ্বনির সম্পাদক ইমরান মাহফুজ এবং কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আহমেদ মাওলা। এ ছাড়াও বক্তব্য রাখেন বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও বিশ্ববিদ্যালয় সহকারী প্রক্টর কামরুন নাহার। সাংবাদিকদের সবার আগে দেখা এবং জানার প্রতি গুরুত্বারোপ করে ইমরান মাহফুজ বলেন, ‘সাংবাদিকতায় দেখার চোখ থাকতে হয়। দেখার গভীরতার মাধ্যমে একটি বিষয়কে পূর্ণাঙ্গভাবে উপলব্ধি করা যায়। আর তা থেকেই সংবাদে বৈচিত্রতা আসে।’

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আজ শিক্ষার্থীরা মানুষ না হয়ে রোবট হচ্ছে জানিয়ে ড. আহমেদ মাওলা বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন মানুষ হওয়ার মন্ত্র নেই। সবাই এখন যন্ত্র-রোবটের মতো হয়ে যাচ্ছে। অথচ বিশ্ববিদ্যালয় মানে উন্মুক্ত জ্ঞানচর্চার কেন্দ্র। পড়াশোনা শুধুমাত্র পরীক্ষা কিংবা চাকরি পাওয়ার জন্য নয়, বরং একজন পরিপূর্ণ মানুষ হতে পারলেই জ্ঞানার্জনের পূর্ণতা আসবে।’ এছাড়াও বক্তারা বলেন, সাংবাদিকতার ভাষা ও সাহিত্যের ভাষা এক নয়। সংবাদ লিখতে গিয়ে বানানের প্রতি যথাযথ লক্ষ্য রেখে উপযুক্ত শব্দ বাছাই করে সংবাদ উপস্থাপন করা উচিত।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজ কিশোর’র সঞ্চালনায় ও অনুষ্ঠানে সভাপতি ছিলেন ক্লাবের সভাপতি শতাব্দী জুবায়ের। অন্যান্যদের মাঝে এমদাদুল হক সরকার; জাহেদ নহিম; সিয়াম চৌধুরী; আবুল বাশার সাজ্জাদ; সোহাগ মণি ও ইমদাদুল হক মিরনসহ সংগঠনের সদস্য।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

"