ইবিতে বিএড ও এমএড কোর্স শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা

প্রকাশ : ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) টিএসসিসির বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান মিলনায়তনে বিএড ও এমএড কোর্স শিক্ষার্থীদের এক প্রশিক্ষণ কর্মশালা ৭ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সকালে অনুষ্ঠিত হয়েছে। কর্মশালাটি ইনস্টিটিউট অব ইসলামিক এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চের (আইআইইআর) পরিচালক প্রফেসর ড. মেহের আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। ওই কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. শাহিনুর রহমান বলেন, পৃথিবীর প্রতিটি মানুষই কোনো না কোনো প্রতিভার অধিকারী। কোমলমতি শিক্ষার্থীদের সুপ্ত প্রতিভার বিকাশ ঘটিয়ে ব্যক্তিগত জীবনে এবং জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে দক্ষতার স্বাক্ষর রাখতে শিক্ষকদের ভূমিকাই প্রথম। এ জন্য শ্রেণিকক্ষ ও শ্রেণিকক্ষের বাইরে পেশাগত জায়গায় মানবিক মূল্যবোধ, বিনয়ী, বড়দের সম্মান করার ও বিবেক বোধসম্পন্ন মানুষ তৈরি করার কারিগর হওয়ার দায়িত্ব নিতে হয় আমাদের এই শিক্ষকদের। তিনি বলেন, প্রাইমারি ও সেকেন্ডারি পর্যায়ের কোমলমতি শিক্ষার্থীদের প্রথম পড়াশোনার হাতেখড়ি হয় আপনাদের কাছে। তাদের আপনারা প্রথম থেকেই যেভাবে গড়ে তুলবেন, তারা সেভাবেই বেড়ে উঠবে। তিনি কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীদের মহান স্বাধীনতার চেতনায় বিশ্বাসী প্রগতিশীল মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার জন্য প্রশিক্ষণার্থীদের প্রতি আহ্বান জানান। ইনস্টিটিউট অব ইসলামিক এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চের (আইআইইআর) পরিচালক প্রফেসর ড. মেহের আলীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। এ ছাড়া বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ট্রেজারার প্রফেসর ড. মো. সেলিম তোহা বলেন, শুধু ভালো রেজাল্ট ও অনেক কিছু জানলেই ভালো শিক্ষক হওয়া যায় না বরং ভালো শিক্ষক হতে হলে প্রথমত একজন ভালো মানুষ হতে হবে। শিক্ষার্থীদের যদি আমি মানবিক মূল্যবোধে দীক্ষিত করে স্বপ্নই দেখাতে না পারি, তাহলে আমি আদর্শবান শিক্ষক হয় কী করে। তিনি শুধু সর্বোচ্চ জিপিওর অধিকারী হওয়ার জন্য চেষ্টা না করে বিবেক বোধসম্পন্ন ভালো সৎ ও দক্ষ মানুষ তৈরি করার জন্য শিক্ষকদের প্রতি আহ্বান জানান। প্রশিক্ষণ কর্মশালায় কি-নোট উপস্থাপন করেন ভারতের হায়দ্রাবাদের প-িত জেহেরুলাল টেকনোলজি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক ড. বিনা বিশ্বাস। প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রক্টর প্রফেসর ড. মো. মাহবুবর রহমান, প্রফেসর ড. এ কে এম মতিনুর রহমান, পরিবহন প্রশাসক প্রফেসর ড. মো. আনোয়ার হোসেন, প্রফেসর ড. দেবাশীষ শর্মা, প্রফেসর ইয়াসিন আলীসহ বিএড ও এমএড প্রোগ্রামোর নব্বইজন প্রশিক্ষণার্থী। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন বাংলা বিভাগের শিক্ষক ফৌজিয়া খাতুন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

 

"