দৈনন্দিন জীবনে মৎস্যসম্পদের গুরুত্ব অপরিসীম

চবি উপাচার্য

প্রকাশ : ২৫ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক
ama ami

স্বয়ংসম্পূর্ণ মাছে দেশ, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে সেøাগানকে ধারণ ‘জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ’ উপলক্ষে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ইনস্টিটিউট অব মেরিন সায়েন্সেস অ্যান্ড ফিশারিজের উদ্যোগে ১৯ জুলাই বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও চবি বিজ্ঞান অনুষদের সম্মুখস্থ লেকে মাছের পোনা অবমুক্ত করা হয়।

প্রধান অতিথি থেকে এ কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। পোনা অবমুক্তকালে আধুনিক জ্ঞান-বিজ্ঞানের কল্যাণে বিশ্বব্যাপী মৎস্যসম্পদ সম্প্রসারণ, আহরণ এবং দৈনন্দিন জীবনে খাদ্য তালিকায় মৎস্যসম্পদের গুরুত্ব আলোকপাত করে উপাচার্য বলেন, বঙ্গবন্ধু তনয়া আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনার প্রাজ্ঞ ও দূরদর্শী চিন্তাচেতনার ফসল হিসেবে ইতোমধ্যে আমরা সমুদ্র জয় করেছি। ‘ব্লু-ইকোনমি’ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সমুদ্রের পরিবেশ সুরক্ষা, সমুদ্রের মৎস্যসম্পদের ব্যবহার, বেকারত্ব নিরসন ও কর্মসংস্থান সৃষ্টি ইত্যাদি ক্ষেত্রে আমাদের সমুদ্রবিজ্ঞানীদের যুগোপযোগী গবেষণাকর্ম পরিচালনা, বাস্তবমুখী পদক্ষেপ গ্রহণ এবং দৃশ্যমান ভূমিকা এখন সময়ের দাবি। প্রসঙ্গক্রমে উপাচার্য বলেন, প্রধানমন্ত্রীর একান্ত আগ্রহ ও সার্বিক দিকনির্দেশনায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ইনস্টিটিউট অব মেরিন সায়েন্সেস অ্যান্ড ফিশারিজ ইতোমধ্যে একটি পূর্ণাঙ্গ ফ্যাকাল্টিতে রূপান্তরিত হতে যাচ্ছে। এটি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় তথা দেশ ও জাতির জন্য একটি গৌরবজনক অধ্যায়। এ ফ্যাকাল্টির বিভাগগুলোর সম্মানিত শিক্ষক-গবেষকরা আধুনিক বিজ্ঞানমনস্ক মানবসম্পদ উৎপাদনে কাক্সিক্ষত ভূমিকা রাখবেন উপাচার্য এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। এ সময় চবি বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ সফিউল আলম, ইনস্টিটিউট অব মেরিন সায়েন্সেস অ্যান্ড ফিশারিজের পরিচালক মোহাম্মদ জাহেদুর রহমান চৌধুরীসহ ইনস্টিটিউটের সম্মানিত শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও বিপুলসংখ্যক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

"