দৈনন্দিন জীবনে মৎস্যসম্পদের গুরুত্ব অপরিসীম

চবি উপাচার্য

প্রকাশ : ২৫ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক

স্বয়ংসম্পূর্ণ মাছে দেশ, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে সেøাগানকে ধারণ ‘জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ’ উপলক্ষে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ইনস্টিটিউট অব মেরিন সায়েন্সেস অ্যান্ড ফিশারিজের উদ্যোগে ১৯ জুলাই বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও চবি বিজ্ঞান অনুষদের সম্মুখস্থ লেকে মাছের পোনা অবমুক্ত করা হয়।

প্রধান অতিথি থেকে এ কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। পোনা অবমুক্তকালে আধুনিক জ্ঞান-বিজ্ঞানের কল্যাণে বিশ্বব্যাপী মৎস্যসম্পদ সম্প্রসারণ, আহরণ এবং দৈনন্দিন জীবনে খাদ্য তালিকায় মৎস্যসম্পদের গুরুত্ব আলোকপাত করে উপাচার্য বলেন, বঙ্গবন্ধু তনয়া আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনার প্রাজ্ঞ ও দূরদর্শী চিন্তাচেতনার ফসল হিসেবে ইতোমধ্যে আমরা সমুদ্র জয় করেছি। ‘ব্লু-ইকোনমি’ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সমুদ্রের পরিবেশ সুরক্ষা, সমুদ্রের মৎস্যসম্পদের ব্যবহার, বেকারত্ব নিরসন ও কর্মসংস্থান সৃষ্টি ইত্যাদি ক্ষেত্রে আমাদের সমুদ্রবিজ্ঞানীদের যুগোপযোগী গবেষণাকর্ম পরিচালনা, বাস্তবমুখী পদক্ষেপ গ্রহণ এবং দৃশ্যমান ভূমিকা এখন সময়ের দাবি। প্রসঙ্গক্রমে উপাচার্য বলেন, প্রধানমন্ত্রীর একান্ত আগ্রহ ও সার্বিক দিকনির্দেশনায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ইনস্টিটিউট অব মেরিন সায়েন্সেস অ্যান্ড ফিশারিজ ইতোমধ্যে একটি পূর্ণাঙ্গ ফ্যাকাল্টিতে রূপান্তরিত হতে যাচ্ছে। এটি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় তথা দেশ ও জাতির জন্য একটি গৌরবজনক অধ্যায়। এ ফ্যাকাল্টির বিভাগগুলোর সম্মানিত শিক্ষক-গবেষকরা আধুনিক বিজ্ঞানমনস্ক মানবসম্পদ উৎপাদনে কাক্সিক্ষত ভূমিকা রাখবেন উপাচার্য এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। এ সময় চবি বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ সফিউল আলম, ইনস্টিটিউট অব মেরিন সায়েন্সেস অ্যান্ড ফিশারিজের পরিচালক মোহাম্মদ জাহেদুর রহমান চৌধুরীসহ ইনস্টিটিউটের সম্মানিত শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও বিপুলসংখ্যক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

"