আনসার আলী দৃশ্য কলায় অসামান্য অবদান রেখেছেন চবি উপাচার্য

প্রকাশ : ১১ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় চারুকলা ইনস্টিটিউটের উদ্যোগে ওই ইনস্টিটিউটের সাবেক প্রফেসর শিল্পী শাহ্ মোহাম্মদ আনসার আলীর প্রয়াণ উপলক্ষে এক স্মরণ সভা ৬ জুলাই শুক্রবার ইনস্টিটিউটে অনুষ্ঠিত হয়। স্মরণ সভায় প্রধান অতিথি থেকে ভাষণ দেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন চবি কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. সেকান্দর চৌধুরী।

উপাচার্য তার ভাষণে মরহুম প্রফেসর এস এম আনসার আলীর স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। তিনি বলেন, এ প্রতিথযশা শিল্পী একজন নিবেদিতপ্রাণ শিক্ষক ছিলেন। দৃশ্য কলায় তার অসামান্য অবদান দেশ-জাতিকে সমৃদ্ধ করেছে, এ ছাড়া জল রং ও প্রতিকৃতি অঙ্কনে এ গুণী শিল্পীর ছিল বিশেষ দক্ষতা-পারদর্শিতা। উপাচার্য আরো বলেন, এ গুণী শিল্পী তার সৃষ্টি ও কর্মের মধ্যে যুগ যুগ ধরে বেঁচে থাকবেন। ইতোমধ্যে আমরা যেসব গুণী শিক্ষক-শিল্পীকে হারিয়েছি, তাদের সৃষ্টি-কর্ম তরুণ প্রজন্মকে উৎসাহিত করার প্রয়াসে সংরক্ষণ করা অত্যন্ত জরুরি মর্মে উপাচার্য অভিমত ব্যক্ত করেন এবং এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য চারুকলা ইনস্টিটিউটের পরিচালক ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের নির্দেশ দেন।

চবি চারুকলা ইনস্টিটিউটের পরিচালক শায়লা শারমিনের সভাপতিত্বে স্মরণসভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন উক্ত ইনস্টিটিউটের অবসরপ্রাপ্ত প্রফেসর শিল্পী অলক রায়, প্রফেসর শিল্পী মোহাম্মদ মনসুর-উল-করিম ও মরহুমের সহধর্মিণী প্রফেসর শিল্পী নাসিম বাণু। এতে আরো বক্তব্য দেন শিল্পী নাজলী লায়লা মনছুর ও শিল্পী স্বপন আচার্য। সভায় মরহুমের জীবনী পাঠ করেন উক্ত ইনস্টিটিউটের সহযোগী অধ্যাপক জাহেদ আলী চৌধুরী। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন ইনস্টিটিউটের সহকারী অধ্যাপক তাসলিমা আকতার। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

"