ফার্মাসিস্টদের মান বাড়াতে বদ্ধ পরিকর গণ বিশ্ববিদ্যালয়

প্রকাশ : ১৪ মে ২০১৮, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক

গণ বিশ্ববিদ্যালয় ফার্মেসি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের পুনর্মিলনীতে বক্তারা ফার্মেসি বিভাগের উন্নয়নমুখী কর্মকা-ের বিবৃতি দিয়ে জানান আগের চেয়ে অনেক ভালো করছেন গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের শিক্ষার্থীরা। দেশের খ্যাতনামা ফার্মাসিউটিকেল কোম্পানি থেকে শুরু করে দেশের বাইরেও গণবির ফার্মাসিস্টদের পদচারণা রয়েছে। দ্রুত আধুনিকতার দিকে অগ্রসরমান বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে আধুনিক ফার্মাসিস্ট তৈরি করার জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ হাতে নিয়েছে ফার্মেসি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন।

১ মে মঙ্গলবার গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের পিএইচএ অডিটোরিয়ামে এ পুনর্মিলনীর আয়োজন করা হয়। এ আয়োজনে অ্যালামনাইদের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিকেলের সায়মা সুলতানা, সিনিয়র ম্যানেজার ট্রেইনিং এবং জেনারেল ফার্মাসিউটিক্যালের হেড অব এইচ আর দিলীপ কুমার শিকদার।

বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালের সিনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার (প্রোডাকশন) এবং অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সাইফুল ইসলাম বলেন, ধীরে ধীরে আমরা সব সমস্যা কাটিয়ে উঠছি। অচিরেই গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মাসিস্টরা একটি সফল ব্র?্যান্ড হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে যাচ্ছে। এ জন্য সবার সহায়তা কামনা করছি আমরা।

গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মো. দেলোয়ার হোসেন বলেন, ফার্মেসি বিভাগের উন্নয়নে আমাদের নজর রয়েছে। ল্যাব আধুনিকায়নসহ সব উন্নয়ন কর্মকা-ের জন্য আমাদের বাজেট বৃদ্ধি করা হয়েছে।

জেনারেল ফার্মাসিউটিক্যালের

সিনিয়র এক্সিকিউটিভ (কিউএ) এবং অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আশেকিন বায়েজিদ সবার উদ্দেশে বলেন, গণ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এখন বিশ্বমানের ফার্মাসিস্ট গ্র্যাজুয়েট বের হচ্ছে। তাদের ক্যারিয়ারের উন্নতিতে কাজ করে যাচ্ছে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

"