উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে ‘বন্ধুত্ব জোরদারে’ কাজ করবে চীন

প্রকাশ : ১৯ নভেম্বর ২০১৭, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

চীন ও উত্তর কোরিয়ার মধ্যে চলে আসা দীর্ঘদিনের বন্ধুত্ব আরো জোরদারে পিয়ংইয়ংয়ের সঙ্গে কাজ করতে আগ্রহী বলে জানিয়েছে বেইজিং।

উত্তর কোরিয়া সফরে গিয়ে চীনের এক শীর্ষ কর্মকর্তা এই সম্পর্ককে দুই দেশের জনগণের কাছে ‘অমূল্য সম্পদ’ বলে বর্ণনা করেন। গতকাল শনিবার চীনা সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে এসব কথা জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

চীনের ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টির কংগ্রেস সম্পর্কে বিস্তারিত জানাতে পিয়ংইয়ং সফর করছেন চীনের আন্তর্জাতিক বিভাগের প্রধান সং টাও। গত মাসে শেষ হওয়া ওই কংগ্রেস দলে নিজের ক্ষমতা আরো সুসংহত করেছেন চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং।

গত শুক্রবার চীনের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিসি) আন্তর্জাতিক বিভাগ শি জিনপিংয়ের প্রতিনিধি হিসেবে সংয়ের সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ কর্মকর্তা চো রিয়ং হের বৈঠক নিয়ে বিস্তৃত বিবৃতি দেয়। পরদিন চীনা গণমাধ্যম ওই বিবৃতিটিকে কেন্দ্র করে খবর প্রকাশ করে।

বিবৃতিতে সং এবং চো দুই দেশ ও দুই দলের মধ্যে সম্পর্ক নিয়ে কথা বলেছেন বলে জানানো হয়। তবে বৈঠকে পিয়ংইয়ংয়ের পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে কোনো আলোচনা হয়েছে কি না, তা জানায়নি সিপিসি।

সাবেক নেতারা চীন ও উত্তর কোরিয়ার মধ্যে যে চিরাচরিত বন্ধুত্ব তৈরি করেছেন ও চর্চা করেছেন তা নিয়ে তারা কথা বলেন। বলেন, এই বন্ধুত্ব দুই দেশের জনগণের কাছেই অমূল্য সম্পদ।

‘দুই দেশ ও দুই দলেরই এই সম্পর্ক আরো অগ্রসর করার ক্ষেত্রে কঠোর পরিশ্রম করা উচিত, যা উভয় দেশের জনগণের উপকারে আসবে’-বিবৃতিতে জানায় সিপিসির আন্তর্জাতিক বিভাগ। পিয়ংইয়ংয়ের ক্ষেপণাস্ত্র বা পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে বিবৃতিতে কিছু বলা হয়নি। সাম্প্রতিক সময়ে বেইজিং এ কর্মসূচির কঠোর বিরোধিতা করেছে। উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএ তাদের খবরে জানায়, চোয়ের সঙ্গে বৈঠকে সং তাদের দুই দল ও দেশের সম্পর্ককে ধারাবাহিকভাবে আরো এগিয়ে নেওয়ার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন।

শুক্রবার সং পিয়ংইয়ং পৌঁছান বলে রয়টার্স জানিয়েছে। তার সফর কয় দিনের কিংবা তিনি উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতা কিম জং উনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন কি না, তা জানা যায়নি। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের চীন সফরের সপ্তাহখানেক পর সিপিসির কোনো শীর্ষ নেতা উত্তর কোরিয়া গেলেন। গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে সর্বশেষ চীনের কোনো প্রতিনিধিদল পিয়ংইয়ং সফরে গিয়েছিল।

"