কলকাতায় প্রধান বিচারপতির এজলাসে আত্মহত্যার চেষ্টা

প্রকাশ : ০৯ আগস্ট ২০১৭, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

কলকাতায় হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির এজলাসে গায়ে পেট্রল ঢেলে আত্মহত্যার চেষ্টা করলেন এক ব্যক্তি। তবে আগুন জ্বালানোর আগেই তাকে ধরে ফেলেন আইনজীবীরা। আত্মহত্যার চেষ্টার অপরাধে তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। গোটা ঘটনায় আদালত চত্বরে ছড়িয়েছে চাঞ্চল্য। আটক শঙ্কর মাজি বেহালা চৌরাস্তা এলাকার বাসিন্দা বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে বিচারপতি নিশীথা মাত্রে নিজের এজলাসে প্রবেশ করেন। ঠিক তখনই এজলাসের মধ্যে বিচার চাই বলে চিৎকার করতে থাকেন ওই ব্যক্তি। কেউ কিছু বুঝে ওঠার আগে হঠাৎই জামার পকেট থেকে পেট্রলের বোতল বের করে গায়ে ঢালতে শুরু করেন। তবে গায়ে আগুন দেওয়ার আগেই আইনজীবীরা তাকে আটকান। তাকে আটক করে হাইকোর্ট থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। সরকারি আইনজীবীরা জানিয়েছেন, ডেভেলপার সঙ্গে জমি বিবাদ নিয়ে আদালতে মামলা চলছিল।

কিন্তু মামলায় নিম্ন আদালতে হেরে যান শঙ্কর। হাইকোর্টে ফের মামলা করলে বিচারপতি জ্যোতির্ময় ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চে মামলা ওঠে। কিন্তু সেখানেও হেরে যান তিনি। তার অভিযোগ, তাকে ষড়যন্ত্র করে ফাঁসানোর চক্রান্ত চলছে। তাই, বিচার চাই বলে আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টা করেন। এই ঘটনার পর প্রায় ৪৫ মিনিট প্রধান বিচারপতির এজলাস বন্ধ ছিল। এরপর ফের চালু হয় আদালতের কাজ। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, মানসিক অবসাদে ভুগছেন শঙ্কর।

"