চোখ থেকে বের হলো ২৭টি কন্ট্যাক্ট লেন্স!

প্রকাশ : ১৮ জুলাই ২০১৭, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

রোগীর চোখ পরীক্ষা করতে গিয়ে ডাক্তার বাবুর চক্ষু চড়কগাছ। চোখের ওপর ‘ঘন নীল’ রঙের আস্তরণ পড়েছে যেন! প্রাথমিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর চক্ষুবিশেষজ্ঞ দেখেন মহিলার চোখে আটকে ১৭টি কন্ট্যাক্ট লেন্স। আরো খুঁটিয়ে পরীক্ষার পর দেখা গেল, সংখ্যাটা ১৭ নয়, ২৭। ঘটনাটি ইংল্যান্ডের। ভেবেছিলেন চোখে ‘ছানি’ পড়েছে। তাই অপারেশন করতে গিয়েছিলেন ৬৭ বছরের এক ব্রিটিশ মহিলা। তখনই পরীক্ষার পর দেখা যায় চোখের মধ্যে আটকে রয়েছে কন্ট্যাক্ট লেন্স। যার জন্যই মূলত দৃষ্টিশক্তি কমে গেছে ওই মহিলার। এরপরই চোখ থেকে গুনে গুনে ২৭টি আটকে থাকা কন্ট্যাক্ট লেন্স বের করেন ডাক্তার।

মহিলা জানান, ৩৫ বছর ধরে তিনি ‘মান্থলি ডিসপোজাল’ কন্ট্যাক্ট লেন্স ব্যবহার করছিলেন। কিন্তু নিয়মিত চেকআপ করাননি। আর তাতেই এই বিপত্তি। বার্মিংহামের কাছে সোলিহাল হাসপাতালে এই বৃদ্ধার চোখের চিকিৎসা হয়। হাসপাতালের চক্ষুচিকিৎসক রুপাল মোরহারিয়া ওই নারীর চিকিৎসা করেন। তিনি বলেন, ‘এমন ঘটনা আমরা আগে কখনো দেখিনি। ১৭টি লেন্স একসঙ্গে লাগানো ছিল। চোখ থেকে মোট ২৭টি লেন্স বের করেছি। এতগুলো লেন্স থাকলে প্রচুর জ্বালাপোড়া ও অস্বস্তি হওয়ার কথা। কিন্তু ওই নারী কিছুই বুঝতে না পারায় আমরা আশ্চর্য হয়েছি।’ অস্ত্রোপচারের আগে এতগুলো লেন্স পাওয়ার পর পিছিয়ে দেওয়া হয় অস্ত্রোপচারের দিনক্ষণ। ওই রোগী ৩৫ বছর ধরে কন্ট্যাক্ট লেন্স ব্যবহার করছেন।

নিজের চোখ থেকে এতগুলো লেন্স বের হতে দেখে নাকি তার ভিরমি খাওয়ার জোগাড়!

"