আরো একটি বিদেশি জাহাজ আটক করল ইরান

প্রকাশ : ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

তেল পাচারের অভিযোগে আরো একটি বিদেশি জাহাজ আটক করেছে ইরানের কোস্টগার্ড। গত শনিবার ফিলিপাইনের ১২ জন নাবিকসহ জাহাজটি আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স। রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, ইরান থেকে ২ লাখ ৮৪ হাজার লিটার ডিজেল পাচারের সময় উপসাগরীয় অঞ্চল থেকে ওই জাহাজটি আটক করা হয়। আটক ব্যক্তিরা সবাই ফিলিপাইনের নাগরিক। এসব জ্বালানি পাচার হয়ে উপসাগরীয় কোনো দেশে যাচ্ছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের অবরোধের মধ্যেই তেহরান তার শক্তি বৃদ্ধির জন্য পেট্রল রফতানি করছে। বিপুল পরিমাণ রাষ্ট্রীয় ভর্তুকি ও দেশীয় মুদ্রার দরপতনের ফলে ইরান থেকে খুবই সস্তায় জ্বালানি সংগ্রহ করে বিভিন্ন দেশ। দেশটি থেকে প্রতিদিন আনুমানিক ১ কোটি লিটার জ্বালানি চোরাচালান করা হয় ইরানি সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে।

ইরানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের উত্তেজনা চলার মধ্যে জুলাইতে উপসাগরীয় এলাকা থেকে ব্রিটিশ পতাকাবাহী ট্যাংকার স্টেনা ইম্পারো আটক করে ইরান। ওই সময়ে আন্তর্জাতিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ এই জাহাজ পরিবহন রুটে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

 

প্রাথমিকভাবে তেহরানের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, ইরানের একটি মাছ ধরার নৌকার সঙ্গে ধাক্কা লাগার পর ব্রিটিশ ট্যাংকারটি আটক করা হয়। পরে ব্রিটিশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানান, আটকের সময় তাদের জাহাজটি ওমানের জলসীমায় ছিল।

 

"