ভারতকে পাকিস্তানি মন্ত্রী

যে কাজ পারো না করো না

প্রকাশ : ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

চাঁদের পৃষ্ঠ ছোঁয়ার একেবারে শেষ মুহূর্তে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে ভারতের চন্দ্রযান-২। তবে এই অভিযানকে ব্যর্থ নয় বরং ৯৫ শতাংশ সফল বলছে ভারত। দেশের জনগণও এটাকে ভারতের সাফল্য হিসেবেই দেখছে। কিন্তু একেবারেই উল্টো পথে হাঁটতে শুরু করেছে পাকিস্তান।

চন্দ্রযান-২ প্রত্যাশিত সাফল্য না পাওয়ায় যে দারুণ খুশি হয়েছে তারা সেটাই স্পষ্ট করেছে প্রতিবেশী রাষ্ট্র। রীতিমতো টুইট করে উচ্ছ্বাস ব্যক্ত করলেন পাকিস্তানের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী চৌধুরি ফাওয়াদ হুসেইন।

চন্দ্রপৃষ্ঠে পা রাখার আগে ২ দশমিক ১ কিলোমিটার দূরত্বেই ল্যান্ডার বিক্রমের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় ইসরোর। চাঁদের অন্ধকার দিকের রহস্য উন্মোচনে বেরিয়ে নিজেই অন্ধকারে হারিয়ে গেছে বিক্রম। এর ভাগ্যে কী ঘটেছে, তা ভারতীয় মহাকাশ বিজ্ঞানীদের কাছে এখনো স্পষ্ট নয়। অপরদিকে ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইন্ডিয়ান স্পেস রিসার্চ অর্গানাইজেশনের (ইসরো) এক কর্মকর্তা বলেছেন, ৯৭৮ কোটি টাকার এই মহাকাশ যান চন্দ্রযান-২ এর মিশন পুরোপুরি ব্যর্থ নয়।

গত শুক্রবার রাত ১টা ৪০ মিনিট থেকে ১টা ৫৫ মিনিটের মধ্যে চাঁদের মাটিতে পা রাখার কথা ছিল চন্দ্রযান-২-এর ল্যান্ডারের। কিন্তু অবতরণের আগ মুহূর্তে সংকেত পাঠানো বন্ধ করে দেওয়ায় সেটি আদৌ অবতরণ করতে পেরেছে কি-না, সে সম্পর্কিত কোনো তথ্য ইসরো পায়নি। ইতিবাচক কোনো সাড়াই পাওয়া যায়নি আর।

"