পুতিনের প্রেমিকা যমজ সন্তানের মা হলেন

প্রকাশ : ২৭ মে ২০১৯, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের কথিত প্রেমিকা এলিনা কাভায়েব যমজ সন্তানের মা হয়েছেন। কিন্তু মস্কোর আর সব বিষয়ের মতো এ বিষয়টি নিয়েও রহস্য তৈরি হয়েছে। বিশ্বের অন্যতম প্রভাবশালী এই নেতার প্রেমিকা গত মাসে একটি ভিআইপি ক্লিনিকে দুটি সন্তানের জন্ম দেন বলে মার্কিন দৈনিক নিউইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

অলিম্পিকে গোল্ড মেডেলজয়ী জিমন্যাস্ট এলিনা কাভায়েবের সঙ্গে পুতিনের সম্পর্কের কথা চাউর বেশ আগে থেকেই। কিন্তু রুশ গণমাধ্যমগুলো তোপে পড়ার ভয়ে বিষয়টি নিয়ে কোনো কথাই তোলে না। তবে নিউইয়র্ক টাইমস সূত্রের বরাত দিয়ে জানাচ্ছে, গত মাসেই মস্কোর একটি নামিদামি ক্লিনিকে যমজ ছেলেসন্তানের জন্ম দেন পুতিনের প্রেমিকা।

রাশিয়ার গণমাধ্যমে পুতিনের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কোনো কিছু প্রকাশ করা না হলেও কাবায়েবের যমজ সন্তান প্রসবের খবরটি বেশ কয়েকটি রুশ গণমাধ্যমে চাউর হয়। অবশ্য ক্রেমলিনের চাপের মুখে পড়ে তা সরিয়েও নেওয়া হয়। তবে ততক্ষণে যা হওয়ার তা হয়ে গেছে।

সার্জেই কেনেভ নামের রাশিয়ার একজন অনুসন্ধানী সাংবাদিক প্রথম জানান যে, রাজধানী মস্কোর কুলাকভ রিসার্চ সেন্টার ফর অবস্টেট্রিকস, গাইনোকলজি অ্যান্ড পেরিনাটোলোজিতে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে দুই ছেলেসন্তানের জন্ম দিয়েছেন কাভায়েব।

ব্রিটিশ দৈনিক দ্য সানের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, এলিনা কাভায়েবের বয়স এখন ৩৬ বছর। তিনি মস্কোর ভিআইপি ক্লিনিকে যমজ ছেলেসন্তানের জন্ম দেওয়ার সময় সেখানকার নিরাপত্তাব্যবস্থা এতটাই শক্তিশালী রাখা হয়েছিল যে, অস্ত্রোপচারের সময় ক্লিনিকের পুরো একটি তলায় আর কাউকে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি! কাভায়েব হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার আগে অসংখ্য নিরাপত্তা কর্মকর্তা পুরো হাসপাতালকে নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলেন বলে জানান সার্জেই কেনেভ নামের রাশিয়ান ওই সাংবাদিক।

তিনি বলেন, কাভায়েব ভর্তি হওয়ার পর ডেলিভারি ওয়ার্ড থেকে অর্ধেক মেডিকেল টিমকেই বের করে দেওয়া হয়েছিল।

"