পদত্যাগের চাপে থেরেসা মে

উত্তরসূরি নির্বাচনের সময়সীমা নির্ধারণ

প্রকাশ : ১৮ মে ২০১৯, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ব্রেক্সিট পরিকল্পনা সফল না হলে পদত্যাগ করতে পারেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। এক সূত্রের বরাতে এমনটাই দাবি করেছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি। সংবাদমাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়, আগামী মাসে ব্রিটিশ পার্লামেন্টে ব্রেক্সিট নিয়ে ভোটাভুটির পর নির্বাচনের সময়সীমা জানানো হবে বলে অঙ্গীকার করেছেন মে। তার পদত্যাগের দাবি জানিয়ে আসা এমপিদের সঙ্গে বৈঠকের পর তিনি এই অঙ্গীকার করেন।

কয়েক সপ্তাহ ধরে উভয় দল পার্লামেন্টে পাস হওয়ার মতো একটি ব্রেক্সিট চুক্তি ঠিক করতে টানা আলোচনা করছে। চলতি বছরের শুরুর দিকে মে সরকারের প্রস্তাবিত চুক্তিটি প্রত্যাখ্যাত হয়। ব্রেক্সিট চুক্তি নিয়ে অচলাবস্থার মধ্যে অনুষ্ঠিত স্থানীয় নির্বাচনে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টি ও বিরোধীদল লেবার পার্টি উল্লেখযোগ্য সংখ্যক আসন হারিয়েছে।

তিনবার প্রত্যাখ্যান হওয়ার পর আবারও ব্রেক্সিট পরিকল্পনা উত্থাপন করতে যাচ্ছেন থেরেসা। এবারও অনুমোদন না হলে থেরেসা মে পদত্যাগ করতে পারেন বলে এক সূত্রের বরাতে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

অন্যদিকে সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন বলেছেন, থেরেসা মে পদত্যাগের করলে তিনি নির্বাচনে লড়াই করবেন। গত বছর শেষের দিকে একটি আস্থা ভোটে উতরে যান ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। তখন পার্লামেন্ট সদস্যরা রায় দিয়েছিলেন ডিসেম্বরের আগে আনুষ্ঠানিকভাবে নতুন প্রধানমন্ত্রী আসা সম্ভব নয়। তবে এই গ্রীষ্মে ব্রেক্সিট ইস্যুতে ব্যর্থতার কারণে পদত্যাগের জন্য দারুণ চাপে রয়েছেন থেরেসা।

 

"