ট্রেনে ভোট দিতে গেলেন হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী

প্রকাশ : ১৩ মে ২০১৯, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ষষ্ঠ দফার ভোট চলছে দেশজুড়ে। গণতন্ত্রের সবচেয়ে বড় উৎসবে সামিল আম জনতা থেকে ভিভিআইপিরা। তবে ভিআইপির বেড়াজাল ভেঙে একজন আম জনতার মতোই গেলেন ভোটকেন্দ্রে। তিনি হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খট্টর।

গতকাল রোববার চন্ডিগড় থেকে শতাব্দী এক্সপ্রেসে চাপেন মনোহরলাল খট্টর। গন্তব্যস্থল ছিল তার নিজের শহর কারনেল। গোটা দেশের ৫৯টি লোকসভা কেন্দ্রের মধ্যে সেখানেও গতকাল রোববার ভোট হয়েছে। আর রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কারনেল কেন্দ্রের ভোটার। তাই নিজের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগে লালবাতির গাড়ি ছেড়ে ট্রেনে চেপে রওনা দেন কারনেল। ভোট দিয়ে বেরোনোর পর রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সবাইকে তাদের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগের আর্জি জানান। তিনি বলেন, নিজের ভোটকেন্দ্রে গিয়ে পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে আসুন।

হরিয়ানার ১০টি লোকসভা কেন্দ্রে গতকাল রোববার হয়েছে ভোটগ্রহণ। প্রতিটি বুথে কড়া নিরাপত্তা। রাজ্যে এবার লড়াই ত্রিমুখী। বিজেপি, কংগ্রেস ও ওম প্রকাশ চৌতালার ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল লোক দল লড়াইয়ের ময়দানে। এই সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনেই সংসদীয় রাজনীতিতে অভিষেক ঘটতে চলেছে সাবেক মুখ্যমন্ত্রী চৌতালার নাতি অর্জুন, দুষ্মন্ত ও দিগবিজয়ের।

গত লোকসভা নির্বাচনে হরিয়ানা হতাশ করেনি বিজেপিকে। ঢালাও ভোট পড়ে পদ্ম শিবিরে। কিন্তু পাঁচ বছরে পরিস্থিতি বদলেছে অনেকটাই। রাজনৈতিক মহলের মতে, বিজেপির জয়ের পথে পদ্মকাঁটার মতো বিঁধতে পারে, কারণ প্রতিষ্ঠানবিরোধী হাওয়া বিজেপির ভালো ফলের ক্ষেত্রে অন্তরায় হয়ে দাঁড়াতে পারে।

 

"