তৃণমূলের ১০০ বিধায়ক বিজেপিতে আসতে তৈরি

বিপ্লব

প্রকাশ : ১২ মে ২০১৯, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

পশ্চিমবঙ্গে ষষ্ঠ দফার ভোটগ্রহণের আগেই গত শুক্রবার তমলুকের বিজেপি প্রার্থী সিদ্ধার্থ নস্করের সমর্থনে ময়নার দেউলিমাঠে জনসভা করলেন তিনি। আর সেই সভা থেকেই একের পর এক হুঙ্কার দিলেন বিপ্লব দেব।

এ দিন তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করে বলেন, দিদি আপনার ছোট্ট ভাই আছি। ত্রিপুরা থেকে বাংলাতে সভা করার জন্য আমি এসেছিলাম। তখন বর্ধমানে আমার দুটি সভা বন্ধ করে দিয়েছেন। অনুমতি দেননি। একটা অন্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী আর একটি রাজ্যে আসছে, কেন তাকে অনুমতি দিচ্ছেন না। আমার জনসভা বাতিল করে, এই বাংলার মানুষকে আটকাতে পারবেন না। আমার জনসভা যত বন্ধ করবেন, এই বাংলার বাঁধ তত ভাঙবে। আর আপনাকে চিরতরে বিদায় করবে। তার জন্য বাংলার মানুষ তৈরি হয়ে বসে রয়েছে। আগামী ২৩ মে যখন ফলাফল আসবে, তখন দিদির জন্য আমাকে ট্যাবলেট কিনে আনতে হবে। দিদির মাথাব্যথা হবে আমি জানি। মাথাব্যথা দূর করতে আমি মোদি ট্যাবলেট নিয়ে আসব। দিদি সিন্ডিকেট, ভাতিজা, গুন্ডাবাজের ট্যাবলেট খেয়েছেন। তাই দিদির মাথাব্যথা ঠিক করতে চৌকিদারের ট্যাবলেট খেতে হবে।

তিনি আরো বলেন, ২৩ তারিখের পর দিদির বিধায়করা মোদির পেছনে চলে যাবে, তখন আপনার শুভেন্দু অধিকারীও চলে যাবেন। অটলজির সরকার থাকতে তিনি চেষ্টা করেছিলেন। শুভেন্দুবাবু অনেক আগেই রাস্তা তৈরি করে রেখেছেন। ২৩ তারিখে আমি ফোন করে খবর নেব, সিদ্ধার্থ বাবুকে বলব, আপনার কাছে ট্যাবলেট থাকলে শুভেন্দু বাবুকেও দিয়ে দেবেন।

বিপ্লব দেব আরো বলেন, ‘আজকে বাংলায় পরিবর্তনের হাওয়া চলছে। তৃণমূলের বন্ধুদের বলব পরিবর্তন হয়ে যাচ্ছে, এখনো সময়ও আছে, ১২ তারিখ (আজ রোববার) ভোট, তার আগে সিদ্ধার্থ নস্কর বাবুর সঙ্গে চলে আসুন। তৃণমূলের ১০০ বিধায়ক বিজেপিতে আসতে তৈরি।

উল্লেখ্য ষষ্ঠ দফায় রাজ্যের যে ১২ লোকসভা কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ পর্ব চলবে, তমলুক তার মধ্যে অন্যতম।

"