ভারতীর গাড়িতে দেড় লাখ টাকা

রিপোর্ট চাইল ইসি

প্রকাশ : ১১ মে ২০১৯, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ভোটের ঠিক দুই দিন আগে বিপাকে বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষ। তার বাড়িতে নগদ টাকা উদ্ধার হওয়ায় রিপোর্ট তলব করল নির্বাচন কমিশন। গভীর রাতে তার বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে বিপুল পরিমাণ নগদ টাকা। গত বৃহস্পতিবার রাতে ওই টাকা উদ্ধার হওয়ার পর গতকাল শুক্রবারই রিপোর্ট তলব করল কমিশন।

আগামীকাল রোববারই দেশে ষষ্ঠ দফার ভোটগ্রহণ। সেদিনই ভোট রয়েছে মেদিনীপুরের ঘাটাল কেন্দ্রেও। আর ওই কেন্দ্রেরই বিজেপি প্রার্থী, একসময়ের দাপুটে পুলুশ কর্মকর্তা ভারতী ঘোষ। উদ্ধার হওয়া টাকার যার উৎস সম্পর্কে সন্তোষজনক ব্যাখ্যা না পাওয়ায় সমস্ত টাকা বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। নির্বাচনের আগে টাকা বিলি করছে বিজেপি। পদ্ম শিবিরের হয়ে এই কাজ করছে সংঘের সেবকরা। এই অভিযোগ গত কয়েক দিন ধরে বারবার বিভিন্ন জনসভায় দাঁড়িয়ে করে চলেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর তারপরই এই টাকা উদ্ধার।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঘাটাল লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষের গাড়ি থেকে অন্তত ১ লাখ ২৩ হাজার নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। একজন প্রার্থীর এত নগদ টাকা একসঙ্গে বহন করা নির্বাচনী বিধি ভঙ্গের সমতুল। সেই কারণেই সমাগত টাকা বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পিংলা থানার পুলিশ। যদিও উদ্ধার হওয়া টাকার সিজার লিস্টে প্রার্থী ভারতী ঘোষ বা তার সঙ্গে থাকা কোনো বিজেপি নেতা স্বাক্ষর করেননি।

ভারতী ঘোষের দাবি, নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ অনুসারে একজন প্রার্থী সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা নিজের সঙ্গে রাখতে পারেন। তিনি সেই নির্দেশিকা অমান্য করেননি। কিন্তু পুলিশের দাবি, উদ্ধার হয়েছে লক্ষাধিক টাকা। এই বিষয়ে ঘাটালের বিজেপি প্রার্থীর বক্তব্য, আমাদের বিজেপিকর্মীদের ওপরে পুলিশ হামলা চালাচ্ছে খবর পেয়ে এত রাতে বাইরে ছুটে এসেছিলাম। এখানে আমাদের সবার টাকা একটি ব্যাগে রাখতে বলা হয়। তারপরে ক্যামেরা চালু করে সেই ব্যাগ আমাদের খুলতে বলে পুলিশ।

পরিকল্পনা করেই পুলিশ তাকে ফাঁসিয়েছে বলে দাবি করেছেন সাবেক পুলিশ সুপার ভারতী ঘোষ। এই ঘটনার মধ্যে রাজ্যের শাসক তৃণমূলের ষড়যন্ত্রের গন্ধ পাচ্ছে বিজেপি শিবির। যদিও ঘাস ফুলের নেতাদের বক্তব্য, পুলিশ এখন নির্বাচন কমিশনের অধীনস্থ। এখানে রাজ্য প্রশাসনের কোনো হাত নেই।

"