লোকসভা নির্বাচন ২০১৯ : মোদির প্রতি রাহুল

রাফাল নিয়ে মুখ খুলুন

প্রকাশ : ১১ মে ২০১৯, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

রাহুল বলেন, মোদি যেখানেই যান, ঘৃণা ছড়াতে থাকেন। হরিয়ানায় এক সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে আর এক সম্প্রদায়ের লড়াই বাধানোর চেষ্টা হচ্ছে। তিনি তামিলনাড়–তে গেলে কোনো পক্ষের সমালোচনা করেন। মহারাষ্ট্রে গেলে উত্তরপ্রদেশ, বিহারের মানুষের বিরুদ্ধে বলেন, এক ধর্মের মানুষকে অন্য ধর্মের মানুষের সঙ্গে লড়িয়ে দেন।

তার বাবা প্রয়াত রাজীব গান্ধী কিংবা তাকে নিয়ে বলতেই পারেন নরেন্দ্র মোদি, কিন্তু একইসঙ্গে তাকে মুখ খুলতে হবে রাফাল কেলেঙ্কারি নিয়েও। প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে গতকাল শুক্রবার এই ভাষাতেই চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন রাহুল গান্ধী।

রাজীবকে প্রথমে ‘ভ্রষ্টাচারী নম্বর ওয়ান’ হিসেবে তুলে ধরা, তারপরেই ভারতের রণতরী ‘আইএনএস বিরাট’কে পারিবারিক ছুটি কাটানোর সময়ে ব্যবহার করার অভিযোগ ভোটবাজারে প্রয়াত সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে নিশানা করে একের পর এক তীর ছুড়ছেন মোদি। এ নিয়ে বিভিন্ন স্তরে সমালোচনা হলেও পিছিয়ে আসছেন না তিনি। হরিয়ানার সিরসায় গতকাল শুক্রবার এর জবাব দিয়েছেন রাহুল। মোদির উদ্দেশে তার মন্তব্য, রাজীব গান্ধী কিংবা আমার সম্পর্কে আপনার যদি কিছু বলার থাকে, নিশ্চয়ই বলবেন। কিন্তু প্রথমে বলুন, রাফাল নিয়ে আপনি কী করেছেন। দেশের মানুষের কাছে আপনাকে ব্যাখ্যা করতে হবে, ২ কোটি চাকরির যে প্রতিশ্রুতি দিয়ে তা পূরণ করলেন না কেন?

উত্তরপ্রদেশের প্রতাপগড়ে কংগ্রেসের রাজীব কন্যা প্রিয়াঙ্কা গান্ধীও নিশানা করেন প্রধানমন্ত্রীকে। মোদির কথা টেনে কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদিকা বলেন, তার থেকে বেশি ভীতু আর কমজোর প্রধানমন্ত্রী আমি জীবনেও দেখিনি।

প্রিয়াঙ্কার মতে, রাজনীতির শক্তি কখনোই বড়সড় প্রচার সভা কিংবা টিভি শো থেকে আসে না। গণতন্ত্রে মানুষই সবচেয়ে বড়। রাজনীতিকদের উচিত তাদের সমস্যার কথা শোনা। তাই বিরোধীদের কথা শোনার ক্ষমতা থাকা উচিত মোদির। তবে মানুষের দুর্দশার দিকে নজর দেওয়া তো দূর, কিভাবে জবাব দিতে হবে প্রধানমন্ত্রী তা-ও জানেন না।

এ দিন সিরসার সভায় বেড়ে চলা বেকারি নিয়ে মোদিকে কটাক্ষ করেন রাহুল। তিনি বলেন, শুরুতে আপনি বললেন মেক ইন ইন্ডিয়ার কথা। তারপরে স্টার্ট আপ ইন্ডিয়া থেকে স্ট্যান্ড আপ ইন্ডিয়া। সব শেষে বলছেন, পাকোড়া বানিয়ে রোজগার করার কথা। মোদির উদ্দেশে রাহুলের প্রশ্ন, চাষিদের ফসলের সঠিক দাম দিতে পেরেছেন কি? ১৫ লাখ টাকা দেশের মানুষের অ্যাকাউন্টে দিয়েছেন? কংগ্রেস সভাপতি অভিযোগ করেন, ‘৫৬ ইঞ্চির ছাতি’ নিয়ে ভোটপ্রচারে কোথাও বেকারি কিংবা কৃষকদের সমস্যা নিয়ে কোনো কথা বলছেন না মোদি।

"