বেঁচে গেলেন তামিল অভিনেত্রী রাধিকা

প্রকাশ : ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

অল্পের জন্য বেঁচে গেছেন বিখ্যাত তামিল অভিনেত্রী রাধিকা শরতকুমার। তিনিও সিনামন গ্র্যান্ড হোটেলে ছিলেন। বোমা হামলার সামান্য আগেই তিনি বেরিয়ে পড়েন সেখান থেকে। এ বিষয়ে ১৪ লাখ টুইটার অনুসারীর কাছে তিনি লিখেছেন, আমি কলম্বোর সিনামন গ্র্যান্ড হোটেল ত্যাগ করার পরপরই সেখানে বোমা হামলা হয়েছে। এই ভয়াবহতা বিশ্বাস করতে পারছি না।

এ নিয়ে টুইট করেছেন তার স্বামী, অভিনেতা ও ভারতে তামিল রাজনৈতিক দল দ্য অল ইন্ডিয়া সামাথুভা মাক্কাল কাটছি দলের প্রতিষ্ঠাতা আর শরতকুমারও। তিনি বলেছেন, ভয়াবহ এক সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে কলম্বোতে। এটা নিন্দনীয়। নিরপরাধ যেসব মানুষ প্রাণ হরিয়েছেন তাদের প্রতি আমাদের হৃদয় নিঙরানো ভালোবাসা।

উল্লেখ্য, দ্বীপরাষ্ট্র শ্রীলঙ্কায় গির্জা এবং বিলাসবহুল হোটেল ও অন্য স্থাপনায় ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলায় নিহত বেড়ে ২০৭ জনে দাঁড়িয়েছে। গত রোববার সকালের দিকের এই সিরিজ হামলায় আহত হয়েছেন আরো অন্তত ৫০০ জন। হামলার কয়েক ঘণ্টা পর দেশটির সরকার এক বিবৃতিতে নিহতের সংখ্যা ১৯০ জন বলে জানায়। কিন্তু সরকারের এই ঘোষণার কিছুক্ষণ পর দেশটির পুলিশ বলছে, রাজধানী কলম্বোজুড়ে সিরিজ বোমা হামলায় ২৯০ জন নিহত ও আরো ৫০০ জন আহত হয়েছেন।

ইস্টার সানডের সকালে কলম্বোর বিলাসবহুল সিনামুন গ্র্যান্ড, শাঙ্গরি লা ও কিনসবুরি হোটেল ও কলম্বোর সেন্ট অ্যান্থনি গির্জা, নেগোমবোর সেন্ট সেবাস্তিয়ান গির্জা ও বাত্তিকালোয়ার জিওন গির্জায় ওই হামলা হয়।

দেশটির প্রধান এবং প্রসিদ্ধ গির্জাগুলো ইস্টার সানডের দিনে আক্রান্ত হতে পারে বলে ওই সতর্কবার্তায় জানান তিনি। গত রোববার সকাল ৮টার দিকে প্রথম বিস্ফোরণের খবর আসে। সময় যত গড়িয়ে যাচ্ছে নিহতের সংখ্যা ততই লাফিয়ে বাড়ছে। দেশটির ইতিহাসে এই হামলাকে কালো অধ্যায় হিসেবে অভিহিত করা হয়েছে। বোমা হামলায় হতাহতের ঘটনায় দেশজুড়ে কারফিউ জারি করা হয়েছে। অনির্দিষ্টকালের জন্য প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত দেশজুড়ে কারফিউ বলবৎ থাকবে। গতকাল সোম ও আজ মঙ্গলবার সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

 

"