পাকিস্তান সফরে সৌদি যুবরাজ

প্রকাশ : ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
ama ami

পাকিস্তান সফরে যাচ্ছেন সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। এ সপ্তাহেই তার দেশটি সফরের কথা রয়েছে। সফরে দুই দেশের মধ্যে ১০ বিলিয়ন ডলারের বেশি মূল্যের বেশ কয়েকটি বাণিজ্য ও বিনিয়োগ চুক্তি স্বাক্ষরিত হবে। কূটনৈতিক সূত্র ও স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে আনাদোলু এজেন্সি।

সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এখনো পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে যুবরাজের এ সফর কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়নি। তবে পাকিস্তানে নিযুক্ত সৌদি রাষ্ট্রদূত নাওয়াফ বিন সাঈদ আল মালিকি গত মাসে সাংবাদিকদের জানান, আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি দুই দিনের সফরে ইসলামাবাদ পৌঁছাবেন যুবরাজ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সৌদি দূতাবাসের একজন কর্মকর্তা পাকিস্তানের ইংরেজি দৈনিক ডনকে বলেন, ইসলামাবাদ সফরে যুবরাজের ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য এরই মধ্যে পাঁচ ট্রাক জিনিসপত্র নিয়ে আসা হয়েছে।

সৌদি রাজপরিবারের সদস্যদের অবশ্য বিদেশ সফরে ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য দেশ থেকে বিভিন্ন সামগ্রী নিয়ে যাওয়ার নজির রয়েছে। ২০১৭ সালের অক্টোবরে দেড় হাজার সঙ্গী নিয়ে রাশিয়া সফরে যান সৌদি রাজা সালমান বিন আবদুল আজিজ। সঙ্গে নিয়ে যান বিমান থেকে নামার জন্য সোনার তৈরি চলন্ত সিঁড়ি ও বিশেষ কার্পেট। এছাড়া সফর উপলক্ষে প্রায় ৮০০ কেজি খাবার নিয়ে যাওয়া হয় রাশিয়ায়। সৌদি রাজা যে হোটেলে উঠেছিলেন, সেখানে তিনি সৌদি আরব থেকে নিয়ে আসা নিজস্ব আসবাব ব্যবহার করেন।

সৌদি যুবরাজের সফরে যেসব চুক্তি স্বাক্ষরের কথা রয়েছে তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য পাচ্ছে পাকিস্তানের কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ বন্দরনগরী গোয়াদরে একটি তেল শোধনাগার নির্মাণের বিষয়টি। পাকিস্তানে সৌদি আরবের পূর্বঘোষিত ১০ বিলিয়ন ডলারের বিনিয়োগ পরিকল্পনার অংশ হিসেবে এই শোধনাগার তৈরি করা হবে।

পাকিস্তানের বিনিয়োগ বোর্ডের প্রধান হারুন শরিফ জানান, রিয়াদ পাকিস্তানের তেল শোধনাগার, পেট্রোকেমিক্যালস, পুনঃনবায়নযোগ্য শক্তি ও খনি খাতে বিনিয়োগে আগ্রহী।

"