রুশ সংযোগ তদন্ত

ট্রাম্প-পুতিন বৈঠকের জন্য রুশদের সঙ্গে কথা বলেন কোহেন

প্রকাশ : ০৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২০১৬ সালের নির্বাচনী প্রচারণার সময় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠ উপদেষ্টা ও সাবেক আইনজীবী মাইকেল কোহেন রাশিয়ার এক নাগরিকের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। ওই রুশ নাগরিক ট্রাম্পকে সহযোগিতা ও রুশ প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের সঙ্গে বৈঠকের প্রস্তাব দিয়েছিলেন। গত শুক্রবার মার্কিন নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপ তদন্তে নিয়োজিত বিশেষ কাউন্সেল রবার্ট মুলার এই তথ্য জানিয়েছেন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান এ খবর জানিয়েছে।

গত শুক্রবার নিউইয়র্কের প্রসিকিউটররা মাইকেল কোহেনের বিরুদ্ধে শাস্তির মেয়াদের বিষয়ে একমত হয়েছেন। আগামী বুধবার এই সাজা ঘোষণা করা হবে। নির্বাচনী প্রচারণার আর্থিক আইন, কর ফাঁকি ও কংগ্রেসকে মিথ্যা দেওয়ার কারণে কারাদন্ড পাওয়া উচিত বলে মনে করেন প্রসিকিউটররা।

তদন্তে উঠে এসেছে, ট্রাম্পের নির্দেশনায় কোহেন দুই নারীকে টাকা দেন। ওই নারীদের সঙ্গে ট্রাম্পের যৌন সম্পর্ক ছিল এবং তা সম্পর্কে কথা না বলতেই এই টাকা দেওয়া হয়। যা নির্বাচনী প্রচারণার আর্থিক নীতির লঙ্ঘন। তদন্তকারীরা কোহেনের চার বছর কারাদন্ডের দাবি জানিয়েছেন।

রুশ সংযোগ তদন্তের নতুন এই অগ্রগতির ফলে ট্রাম্প আরো চাপে পড়তে পারেন। কারণ কোহেন প্রায় এক দশক ধরে ট্রাম্পের আইনজীবী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের মার্চে মার্কিন নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপের বিষয়ে তদন্ত নিয়ে ট্রাম্প প্রকাশ্যে বারবার তার আইন কর্মকর্তাদের সমালোচনা করেন। তখন থেকে ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণা শিবির ও মস্কোর মধ্যে সম্ভাব্য যোগাযোগের বিষয়ে প্রমাণ অনুসন্ধান শুরু করেন বিশেষ কৌঁসুলি রবার্ট মুলার। আইন মন্ত্রণালয়ের তদারকিতে বিস্তৃত এই তদন্তের কারণে ট্রাম্পের কয়েকজন ঘনিষ্ঠ সহযোগীর বিরুদ্ধে অপরাধের অভিযোগ আনা হয়।

"