লাখ রুপির পেঁচা

প্রকাশ : ০৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ভারতের পাঁচ রাজ্যে শুরু হয়ে গেছে বিধানসভা নির্বাচন। আর এই নির্বাচনে ভারতের পাঁচ রাজ্যের মধ্যে তেলেঙ্গানা রাজ্যে এখন পেঁচার কদর তুঙ্গে। তেলেঙ্গানায় বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা রীতিমতো পকেটের রুপি খরচ করে পেঁচা কিনছেন। কেন? তেলেঙ্গানা তথা দক্ষিণ ভারতের মানুষের বিশ্বাস, পেঁচা হলো সব থেকে অপয়া প্রাণী। তাই ভোটের আগে তেলেঙ্গানার ক্ষমতাসীন ও বিরোধী দুই রাজনৈতিক শিবিরেরই এখন লক্ষ্য পেঁচা মেরে তা বিরোধী প্রার্থী বা নেতার বাড়িতে ফেলে আসা। এই কুসংস্কারের জেরে বিলুপ্তপ্রায় পেঁচা আরো অবলুপ্তির পথে চলে যাচ্ছে।

এমনিতেই ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যে পেঁচা সেভাবে পাওয়া যায় না। তাই পার্শ্ববর্তী রাজ্য কর্ণাটক থেকে শুরু হয়েছে পেঁচা আমদানি। পাচারকারীরা কর্ণাটক থেকে চোরা শিকারিদের কাছ থেকে অল্প দামে পেঁচা কিনে তা নিয়ে যাচ্ছে তেলেঙ্গানায়। তারপর সেখানে পেঁচাগুলো বিক্রি করা হচ্ছে তিন থেকে চার লাখ রুপিতে। সম্প্রতি পেঁচা চোরা কারবারিদের আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদে কুসংস্কারের এমন তথ্য পেয়েছে তেলেঙ্গানা পুলিশ। গোটা ভারতে একটা সময় মোট ৩৩টি প্রজাতির পেঁচা পাওয়া যেত, যার বেশির ভাগই আজ বিলুপ্তির পথে। ভারতে বর্তমানে গোটা তিনেক প্রজাতির পেঁচা পাওয়া যায়। আর সেই বিলুপ্তপ্রায় পেঁচাকেই এখন ভোটের হাতিয়ার করেছেন রাজনৈতিক নেতারা। তেলেঙ্গানা পুলিশের হাতে ধরা পড়া পাচারকারীদের তথ্য অনুযায়ী, প্রথমে পেঁচাগুলোকে ধরে আনা হচ্ছে। তারপর তান্ত্রিকের মাধ্যমে ওই পেঁচার শরীরে অশুভ শক্তি ঢুকিয়ে দেওয়া হচ্ছে। পরবর্তী সময়ে ওই পেঁচার শরীরের বিভিন্ন অংশ কেটে তা রাতের অন্ধকারে বিরোধী রাজনৈতিক দলের প্রার্থী ও নেতাদের বাড়িতে ফেলে আসা হচ্ছে।

 

নেতাদের আশা, পেঁচার অশুভ শক্তির কারণেই বিরোধী দলের নেতাকে ঘায়েল করে নিজের জয় সুনিশ্চিত করা যাবে।

 

"