বল্লভভাইয়ের মূর্তি নিয়ে ব্রিটেনেও বিতর্ক

প্রকাশ : ০৬ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ভারতে প্রায় তিন হাজার কোটি টাকা খরচ করে বল্লভভাই প্যাটেলের মূর্তি বসিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি। গুজরাতে ‘স্ট্যাচু অব ইউনিটি’ বা ‘ঐক্যের মূর্তি’ নামে বসানো বিশ্বের সর্বোচ্চ এ মূর্তির খরচ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো। এবার বিতর্ক ছড়িয়েছে ব্রিটেনেও। বলা হচ্ছে, বিভিন্ন প্রকল্পে ব্রিটেন থেকে বিরাট অঙ্কের সাহায্য নিয়ে সেই টাকা মূর্তি বানানোর পেছনে খরচ করেছে মোদি সরকার। ব্রিটেনের একটি প্রথম সারির সংবাদপত্রে প্রকাশিত নিবন্ধে বলা হয়েছে, ৫৬ মাস ধরে বিশ্বের সর্বোচ্চ মূর্তি গড়ার কাজ হয়েছে ভারতে। ওই বছরগুলোতে ব্রিটিশ করদাতারা ভারতকে প্রায় ১১৭ কোটি পাউন্ড (প্রায় ১১ হাজার ৭৫ কোটি টাকা) অর্থ সাহায্য দিয়েছে। সংবাদপত্রটির দাবি, ২০১২ সালে মূর্তি তৈরির কাজ শুরুর বছরে ৩০ কোটি পাউন্ড আর্থিক অনুদান দেয় ব্রিটেন। তার পরের তিন বছরে দেওয়া হয়েছে যথাক্রমে ২৬ কোটি, ২৮ কোটি ও ১৮.৫ কোটি পাউন্ড।

 

অনুদানের টাকা মূর্তি তৈরিতে সরাসরি খরচ না করা হলেও এক হাতে সাহায্য নিয়ে অন্য হাতে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু মূর্তি গড়েছে ভারত।

ব্রিটিশ এমপি পিটার বোন ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন, ‘ভারত আর্থিক অনুদান নিচ্ছে। আবার বিরাট অঙ্কের অর্থ খরচ করছে মূর্তি গড়ে তুলতে। এটা নির্বুদ্ধিতা ছাড়া কিছু নয়। এ ঘটনা বুঝিয়ে দিচ্ছে, ভারতকে আর্থিক অনুদান দেওয়ার প্রয়োজন নেই। অর্থ কীভাবে খরচ করবে, সেটা তাদের নিজস্ব ব্যাপার, তবে এত বড় মূর্তি যারা বানাতে পারে তাদের সাহায্যের কোনো প্রয়োজন নেই।’

 

"