যাজকদের নির্যাতনের শিকার ‘হাজার হাজার শিশু’

প্রকাশ : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

জার্মানিতে প্রায় ৭০ বছরে তিন হাজার ছয়শরও বেশি শিশু রোমান ক্যাথলিক গির্জার যাজকদের নির্যাতনের শিকার হয়েছে বলে ফাঁস হওয়া এক প্রতিবেদনে জানা গেছে। গির্জার অনুসন্ধানেই ১৯৪৬ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত হওয়া এসব নির্যাতনের তথ্য উঠে এসেছে। বিশ্বজুড়ে যাজকদের বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের অভিযোগের মধ্যেই জার্মানির যাজকদের যৌন নির্যাতনের এসব তথ্য সামনে এলো।

ওই অনুসন্ধান প্রতিবেদনটি আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করার কথা রয়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি। জার্মান সংবাদমাধ্যম স্পিগেল জানায়, ফাঁস হওয়া প্রতিবেদনটি থেকে জার্মানির ১ হাজার ৬৭০ জন পাদ্রি ৩ হাজার ৬৭৭ জন নাবালকের ওপর বিভিন্ন ধরনের যৌন নির্যাতন করেছেন বলে জানা গেছে। জার্মানির গির্জার এক মুখপাত্র একে ‘খুবই হতাশাজনক ও লজ্জাজনক’ বলে বর্ণনা করেছেন। দশকের পর দশক ধরে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রোমান ক্যাথলিক যাজকদের যৌন নির্যাতনের তথ্য উন্মোচনের ধারাবাহিকতার মধ্যেই জার্মানির যাজকদের নির্যাতনের তথ্য ফাঁস হলো। অভিযুক্ত যাজকদের মধ্যে মাত্র ৩৮ শতাংশকে শাস্তি দেওয়া হয়েছে, যাদের বেশির ভাগই হালকা শৃঙ্খলাজনিত শাস্তি পেয়েছেন বলে ফাঁস হওয়া প্রতিবেদনটির বরাতে জানিয়েছে জার্মান গণমাধ্যম।

অনুসন্ধানে পাওয়া অভিযোগগুলোর প্রতি ছয়টির মধ্যে একটি ধর্ষণের অভিযোগ বলে জানিয়েছে বিবিসি।

নির্যাতনের শিকারদের অধিকাংশই বালক, অর্ধেকেরও বেশি শিশুর বয়স ১৩ কিংবা এরও নিচে। নির্যাতক যাজকরা প্রায়ই অন্য এলাকায় চলে যেতেন, যেখানে এমনকি তাদের আগের কৃতকর্মের ব্যাপারে সতর্কও করা হতো না। জার্মান বিশপদের কর্তৃত্বাধীন ২৭টি অঞ্চলের ৩৮ হাজার নথি পর্যালোচনা শেষে জার্মানির তিনটি বিশ্ববিদ্যালয় রোমান ক্যাথলিক যাজকদের শিশু নির্যাতনের এ চিত্র তুলে আনে। প্রতিবেদনটির লেখকরা বলছেন, নির্যাতনের এ চিত্র সম্ভবত আরো ব্যাপক। কারণ অনেক নথিই ‘ধ্বংস কিংবা বিকৃত’ করা হয়েছে। চার্চের ‘অন্ধকার দিকে আলো ফেলার’ লক্ষ্যে এ অনুসন্ধান হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রতিবেদনটির উদ্যোক্তা জার্মান বিশপ কনফারেন্সের মুখপাত্র বিশপ স্টিফেন আকেরমান। স্পিগেলে প্রকাশিত এ প্রতিবেদন নিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য করেনি ভ্যাটিকান।

"