চলচ্চিত্রে এরদোয়ানকে হত্যার দৃশ্য, নির্মাতার কারাদন্ড

প্রকাশ : ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
ama ami

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ানকে হত্যা ও তার পরিবারের সদস্যদের মৃত্যুদৃশ্য চলচ্চিত্রে দেখানোয় সংশ্লিষ্ট নির্মাতাকে ছয় বছর কারাদ- দিয়েছেন দেশটির আদালত। গত শুক্রবার দেওয়া রায়ে সন্ত্রাসী সংগঠনের সদস্য হওয়ার অভিযোগে তাকে আলাদা সাজা দেওয়া হয়েছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, সংশ্লিষ্ট চলচ্চিত্র নির্মাতা গত বছর ‘অ্যাওয়েকিং’ নামের চলচ্চিত্রটির ট্রেলার প্রকাশ করেছিলেন। সেখানেই হত্যার দৃশ্য ছিল। তারপরই তাকে গ্রেফতার করা হয়।

২০১৬ সালের ব্যর্থ সেনা অভ্যুত্থানের ওপর নির্মিত চলচ্চিত্রের ট্রেইলারটিতে দেখানো হয়েছিল, চারপাশে নিহত মানুষের লাশ, যাদের মধ্যে আছে এরদোয়ানের পরিবারের সদস্যরা, তার মেয়ের জামাই ও অর্থমন্ত্রী বেরাত আলবায়রাক। তাদের গুলি করে মেরে ফেলা হয়েছে। আর প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানের মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে রয়েছেন একজন সেনাকর্মকর্তা। এ সময় এরদোয়ানের চরিত্রে অভিনয়কারী ব্যক্তিকে দোয়া-দরুদ পড়া অবস্থায় দেখানো হয়।

ট্রেইলারটি প্রকাশিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তা প্রবল সমালোচনার জন্ম দেয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে মামলা হয় নির্মাতা আলি আভজুর বিরুদ্ধে। শুক্রবার আদালত তাকে ছয় বছরের কারাদ- দেয়। তা ছাড়া তুরস্কের দৃষ্টিতে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী ফেতুল্লাহ গুলেনের সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে তাকে আরো ছয় মাসের কারাদ- দেওয়া হয়। আদালত রায়ে বলেছে, ‘মানুষের মতামত পক্ষে নিতে সন্ত্রাসী সংগঠনটির কার্যক্রমের সঙ্গে সংগতি রেখে নির্মাতা আভজু তার চলচ্চিত্রে প্রচারণা চালিয়েছেন।’

কিন্তু তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন আভজু। প্রেসিডেন্সিয়াল প্যালেসে বিমান হামলার মতো ঘটনা ঘটানো ব্যর্থ অভ্যুত্থানটির মূল লক্ষ্য তিনিই ছিলেন, এরদোয়ানের বারবার বলা এমন বক্তব্যের কথা উল্লেখ করে আভজু বলেছেন, ‘আমি যদি সন্ত্রাসী সংগঠনের প্রচারণার অংশীদার হতাম তাহলে আমি তার দোয়া পড়ার চিত্র দেখাতাম না, তার পালিয়ে যাওয়ার দৃশ্য দেখাতাম।’

"